1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

ইতালিতে শত শত মসজিদ বন্ধ, খোলা আকাশের নিচে নামাজ আদায়ে মুসল্লিদের প্রতিবাদ

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬
  • ১০ দেখা হয়েছে

ইতালি রাজনৈতিকভাবে উদার গণতান্ত্রিক, ধর্মীয় ও পারস্পারিক সম্পৃতির দিক থেকে অসাম্প্রদায়িক, সমাজ সংহতিতে ধর্মনিরপেক্ষ এবং আইনের শাসন ও মানবাধিকারের দেশ হলেও, সেটি এখন দিনে দিনে কেতাবি শ্লোগানে পরিণত হতে যাচ্ছে। ইউরোপের দেশে দেশে এ চিত্রটি এখন বাস্তবতা।

প্রবাসের আরেক নাম অনিশ্চয়তা, যেনো কচুপাতার পানি। কেউ একটু নাড়া দিলেই যায় যায় অবস্থা। বিশেষ করে উন্নত অমুসলিম দেশগুলোতে এ অবস্থাই বিরাজ করছে।

ইউরোপের কোথাও কিছু ঘটলে গোটা ইউরোপ মুসলিম কমিউনিটিকে কোনো না কোনো ভাবে হেনস্থায় পড়তে হয়। ইউরোপের সবচেয়ে বেশি অভিবাসির বসবাস ইতালিতে। তার অধিকাংশ এশীয়ান আফ্রিকান মুসলিম। খ্রিস্ট ধর্মের সূতিকাগার খ্যাত ভ্যাটিকান সিটি ইতালির রোম শহরে অবস্থিত। তাই এখানে ধর্মীয় স্বাধীনতা শতভাগ বিরাজ করবে সেটাই স্বাভাবিক।

কিন্ত অনেক মুসলিমের বসবাস সত্যেও সেখানে কোনো মসজিদ না থাকায়, আশির দশকে সৌদি বাদশাহর উদারতা ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ, পাকিস্তান, লিবিয়া, কাতার, ইন্দোনেশিয়া সহ আরো কিছু মুসলিম দেশের সম্মিলিত অর্থায়নে গড়ে ওঠেছিল, ইউরোপের সর্ববৃহত দৃষ্টি নন্দন ‘রোম কেন্দ্রীয় মসজিদ কমপ্লেক্স। যেটি ১৯৯৫ সালে সর্ব সাধারনের জন্য উম্মুক্ত করা হয়।

নব্বই দশকের শেষ নাগাদ ইতালিতে মুসলমান জনসংখ্যা রেকর্ড পরিমাণ বৃদ্ধি পায়। অন্য দিকে সেন্ট্রাল মসজিদ শহরের বাইরে। ফলে, মুসলিম জনবহুল এলাকায় সময়ের প্রয়োজনেই এক এক করে গোটা ইতালিতে মসজিদ সংখ্যা অনেক বৃদ্ধি পায়। যা সম্পূর্ণ ব্যক্তিগত উদ্যোগে। মুসল্লিগনের দানেই মসজিদগুলো পরিচালিত হয়ে আসছিল।

কিন্তু হঠাৎ করে গত অল্প কিছুদিনের ব্যবধানে রোম শহরের অনেক মসজিদ বন্ধ করে দিয়েছে স্থানীয় সরকারের প্রশাসন। আরো বেশ কিছু মসজিদ বন্ধের নোটিশ দিয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে বিভিন্ন বাহানায় সব মসজিদ বন্ধ করার পরিকল্পনা করছে ইতালিয় প্রশাসন।

এ অবস্থায় হাজার হাজার মুসলমান ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান পালনে মুসলিম কমিউনিটি পড়েছে মহাসংকটের মুখে। প্রতি জুম্মাবার সর্বস্তরের মুসল্লিদের সাথে নিয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে পয়েন্টে, খোলা আকাশের নিচে নামাজ আদায়ের মাধ্যমে বন্ধ মসজিদ খুলে দেওয়ার প্রতিবাদ আন্দোলন অব্যাহত রেখেছে বিশেষ করে বাংলাদেশি মুসলিম কমিউনিটি।

এ দিকে বাংলাদেশ সমিতি ইতালির সাবেক সভাপতি, ইল- ধুমকেতু পত্রিকার স্বত্বাধিকারি, বিশিষ্ট কমিউনিটি ব্যক্তিত্ব নুরে আলম সিদ্দীকি বাচ্চু, কমিউনিটির পক্ষে ৩০ সেপ্টেম্বর, বিশাল গণজমায়েত ও জুম্মার নামাজে অংশ নিয়ে ধর্মীয় অধিকার নিশ্চিত করার উদ্বাত্ত আহবান জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে ইতালিয় প্রবাসী সামাজিক সংগঠন- গ্লোবাল ফাউন্ডেশন ফর হিউম্যান রাইট রোমের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আহমেদ নাইম, মুসলীম কমিউনিটির নেতৃবৃন্দের আহুত আন্দোলনে দল মত নির্বিশেষে সকল মুসলমানদেরকে উপস্থিত থেকে ঈমানী দায়িত্ব পালনের আহবান জানিয়েছেন।

উৎসঃ   আরটিএনএন

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com