1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :
শিরোনাম :
সাংবাদিক মামুনকে হত্যার চেষ্টা ঘটনায় জড়িদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবী সাংবাদিক ইব্রাহীম খলিল মামুনকে গাড়ি চাপা দিয়ে হত্যার চেষ্টা বাংলাদেশ দূতাবাস আবুধাবিতে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপন কলাতলী ডলফিন মোড় থেকে ইয়াবাসহ যুবক আটক কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রকল্প পরিদর্শন করলেন গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী ঈদগাঁও থানার উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষণে নিহিত ছিল বাঙালীর মুক্তির ডাক-অতিরিক্ত ডিআইজি জাকির হোসেন স্বাধীনতা পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান এডঃ ওসমান গণি’র মৃত্যুতে কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির শোক উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ প্রাপ্তিতে র‌্যাবের আনন্দ উদযাপন 

এখন থেকে মোদি-ওবামা আলাপ হবে হটলাইনে

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ২১ আগস্ট, ২০১৫
  • ৩২ দেখা হয়েছে

কক্সবাজার আলো ডেস্ক :
যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মধ্যে সরাসরি যোগাযোগে চালু হলো ‘নিরাপদ টেলিফোন সংযোগ বা হটলাইন’। এ লাইনের মাধ্যমে দুই নেতা এবং দুই দেশের নিরাপত্তা উপদেষ্টারা সরাসরি কথা বলতে পারবেন।
রাশিয়া, ব্রিটেন ও চীনের পর ভারত চতুর্থ দেশ, যার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের হটলাইন চালু হলো। ভারতের জন্য এটিই প্রথম রাষ্ট্রপ্রধান পর্যায়ে হটলাইন।
মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিশেষ সহকারী ও হোয়াইট হাউসের জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক জ্যেষ্ঠ পরিচালক পিটার আর ল্যাভয় বার্তা সংস্থা পিটিআইকে বলেন, ‘এটি (হটলাইন) মাত্র কিছুদিন আগে স্থাপন করা হয়েছে।’
দুই নেতা এই মাধ্যম ব্যবহার করেছেন কি না এ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটি এখনো ব্যবহার করা হয়নি।’
গত ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিতে ওবামা যখন ভারত সফরে আসেন, তখন এই হটলাইন চালুর সিদ্ধান্ত হয়।
পিটার আর ল্যাভয় ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, ‘হটলাইন হলো সংকটকালে যোগাযোগের একটি মাধ্যম বা ব্যবস্থা, এটি ঠান্ডা যুদ্ধের সময় সংকট নিরসনে ব্যবহার করা হয়েছিল। তবে এখন এ ধরনের উদ্দেশে এটি চালু করা হয়নি।’
হোয়াইট হাউসের এই শীর্ষ কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এটি অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ দুই সহযোগীর মধ্যে একটি নিরাপদ যোগাযোগমাধ্যম। এর মাধ্যমে রাষ্ট্রপ্রধান পর্যায়ে মতবিনিময় এবং প্রকৃত সমস্যাগুলো সমাধানে দৃষ্টিভঙ্গির সমন্বয় করতে পারবেন।’
এর আগে ২০০৪ সালে ভারত ও পাকিস্তান পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে হটলাইন চালুর ব্যাপারে সম্মত হয়েছিল। ২০১০ সালে নয়াদিল্লি ও বেইজিং পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ে হটলাইন চালুর ঘোষণা দেয়া হয়। তবে এখনো চালু হয়নি।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com