1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর উদ্যোগে কবি আবদুল মান্নান সৈয়দের জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৩৭ দেখা হয়েছে

বার্তা পরিবেশক :
কক্সবাজার সাহিত্য একাডেমীর উদ্যোগে আয়োজিত কবি আবদুল মান্নান সৈয়দের পঞ্চম মৃত্যু বার্ষিকীর আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তাগন বলেছেন, কবি আবদুল মান্নান সৈয়দ ছিলেন একজন শক্তিমান ও প্রতিভা ধর কবি। বাংলা সাহিত্যের প্রতিটি ক্ষেত্রে কবি মান্নান সৈয়দ-এর দখল ছিলো ঈর্ষণীয়। তিনি নজরুল নিয়ে যেমন লিখেছেন, তেমনি লিখেছেন রবীন্দ্রনাথ নিয়ে। তিনি লিখেছেন কবি ফররুখ নিয়ে, লিখেছেন রণেশ দাশ গুপ্ত নিয়ে।
বক্তাগণ বলেন, কবি মান্নান সৈয়দ বিলাসী জীবন পছন্দ করতেন না। তিনি নিজেকে দেশের সাধারণ মানুষের কাতারে নিয়ে যেতে সচেষ্ট ছিলেন, তাতে তিনি শতভাগ সফলও হয়েছেন। এ প্রসঙ্গে কবি নিজেই লিখেছেন এভাবে, ‘আমাকে যেন কবর দেওয়া হয় আজিমপুর গোরস্থানে, সাধারণ মানুষের সঙ্গে, আব্বা-আম্মার সঙ্গে। ঘৃণা করি তোমেেদর ভদ্দরলোক  সমাজকে, যারা কারও মৃত্যু হলে কোথায় কবর দেওয়া হলো, সেটা জিগ্যেস করে। ছিঃ, কবর বাঁধাই করে রাখো হবে, স্মৃতিফলক দিয়ে রাখা হবে, এ রকম ঘৃণ্য লোক দেখানো প্রবণতাকে ধিক্কার দিই আমি। তোমরা যারা সুশীল সমাজের মানুষ, তারা এই সব নিয়ে তর্কে প্রবৃত্ত হও। আমার কথা, পৃথিবীর কোটি কোটি মানুষের মধ্যে আমি কে? আমি তো একটা বুদ্বুদ মাত্র।
একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মুহম্মদ নূরুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুলের সঞ্চালনায় বক্তাগণ আরো বলেন, তিনি শুধু কবি, কথাশিল্পী, কবিতা-বিষয়ক প্রবন্ধ ও সমালোচক ছিলেন না। তিনি বাংলা কবিতার বিশুদ্ধ পরাবাস্তব আর আগাগোড়া টানা গদ্যে কবিতা রচনায় বিরাট সাফল্য অর্জন করেছেন।
একাডেমীর ৩৫৪তম পাক্ষিক সাহিত্য আসরটি কবি আবদুল মান্নান সৈয়দকে নিয়েই নিবেদন করা হয়। অনুষ্ঠানে বক্তাগণ আরো বলেন, কবি মান্নান সৈয়দের শক্থিমান লেখনিকে ৬০-এর দশকের সরকার প্রচন্ড রকমের ভয় পেতেন। আর সে কারণেই তার গ্রন্থকে পাকিস্তান সরকার নিষিদ্ধ করেছিলেন।
অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন ঈদগাঁও ফরিদ আহমদ কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ওমর ফারুক।
অনুষ্ঠানের কবির কর্ম ও জীবনালেক্ষ্য নিয়ে আলোচনা করেন, একাডেমীর স্থায়ী পরিষদের সদস্য গবেষক নূরুল আজিজ চৌধুরী, অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আমিরুদ্দীন ও রাজাপালং এমদাদুল উলুম মাদরাসার আরবি সাহিত্যের প্রভাষক রাহমত সালাম প্রমুখ।
শুরুতে একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক কবি রুহুল কাদের বাবুল কবির লিখিত সংক্ষিপ্ত কর্ম ও জীবনালেক্ষ্য পাঠ করেন।
পরে কবির বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাত করা হয়। দোয়া ও বিশেষ মনোজাত পরিচালনা করেন রাহমত সালাম।
পরে কবিতা পাঠ করেন রুহুল কাদের বাবুল, মোহাম্মদ আমিরুদ্দীন, রাহমত সালাম, মোহাম্মদ বেলাল-উল-ইসলাম সাগর, মিজান সিকদার।
উল্লেখ্য, কবি আবদুল মান্নান সৈয়দ ১৯৪৩ সালের ৩ আগস্ট মাতৃজটর থেকে পৃথিবীতে আগমন করেন ও ২০১০ সালের ৫ সেপ্টেম্বর পৃথিবীর মায়া ত্যাগ করে চলে গেছেন না ফেরার দেশে।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com