1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
শিরোনাম :
বিশ্বনবী (সা.)-কে কটাক্ষ করে ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর প্রতিবাদে কক্সবাজারে বিক্ষোভ মিছিল চুনতীর ঐতিহাসিক ১৯ দিন ব্যাপী সীরাতুন্নবী (সা:) মাহফিল শুরু টেকনাফ প্রেসক্লাব ভবন নির্মাণ কাজের উদ্বোধন ফ্যাসিস্ট আওয়ামী সরকারের বিদায় ঘন্টা বেজে গেছে, পতন আসন্ন- কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা লুৎফুর রহমান কাজল নিশোর প্রথম চলচ্চিত্রের ট্রেইলার প্রকাশ (ভিডিও) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি নিয়ে সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার রোনালদোবিহীন বার্সার মুখোমুখি হবে জুভেন্টাস রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারকে তাগিদ যুক্তরাষ্ট্রের পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি পাচ্ছে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় শক্তিশালী সশস্ত্রবাহিনী গড়তে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

ছাত্রলীগের দায় কি এড়াতে পারে আওয়ামী লীগ?

  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৭ দেখা হয়েছে

কক্সবাজার আলো ডেস্ক

আদর্শচ্যুত কর্মীদের ব্যাপারে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ ও আদর্শের জাগরণ গড়ে তোলার পরামর্শ দিয়েছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড, চাঁদাবাজি, নারী নিপীড়নের মতো নেতিবাচক কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে বিভিন্ন সময় সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হলেও ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে অভিযোগ কমছে না। কেন?

জানতে চাইলে গবেষক মহিউদ্দিন আহমদ বলেন, আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতৃত্বের কারও সন্তান কি ছাত্রলীগ করে? করে না। কারণ তারা চান না তাদের সন্তানরা লাঠিয়াল হোক। নিজেদের সন্তানদের তারা নেতা বানাবেন ভবিষ্যতে। লাঠিয়াল হিসেবে ব্যবহার করবেন অন্যের সন্তানকে। একটা রাজনৈতিক দল ছাত্রসংগঠন পুষবে কেন?

বাসদ সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামানের মতে, মুক্তিযুদ্ধের সময় কোনো ছাত্র নারীর উপর অত্যাচার করেনি। স্বাধীনতাকামী বাঙালি অপর স্বাধীনতাকামীকে হত্যা করেনি। ২৩ বছরের লড়াইয়ে মানুষের মধ্যে নৈতিকতা, মূল্যবোধ ও আদর্শবাদ যুবসমাজের মধ্যে গড়ে উঠেছিলো। ৫০ বছর ধরে যারা দেশশাসন করে আসছেন, তাদের বলতে হবেÑ কেন রাজাকারের বাংলাদেশে আবার আমরা ফিরলাম।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক মোহাম্মদ এ আরাফাতের যুক্তি, সরকারি দল আওয়ামী লীগ বা এর অঙ্গসংগঠনের কেউ অথবা সরাকারের ভেতরে কারও বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ এলেও আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী-সমর্থকগোষ্ঠী সবার আগে সোচ্চার হয়। বিচার দাবি করে। সরকারও অভিযুক্ত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়। ছাত্রলীগের কিছু ছেলে আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যা করার পর আওয়ামী লীগের সকল স্তরের সকল নেতা-কর্মী-সমর্থকগোষ্ঠী সেই জঘন্য হাত্যাকাণ্ডকে নিন্দা জানিয়েছে এবং বিচার চেয়েছে। সুশীল আর বামাতিরা তো গলা আর চোখ ভিজিয়ে একাকার করেছে!

সূত্র: আমাদের সময়.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com