1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :
শিরোনাম :
টেকনাফে সর্ববৃহৎ ক্রিস্টাল মেথ আইসের চালান জব্দ  সেন্টমার্টিনে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও বিদেশী অস্ত্র উদ্ধার সাবেক এমপি বদির বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির নির্দেশ বুধবার থেকে ফের ভার্চুয়ালি চলবে উচ্চ আদালত সেবা নিতে এসে মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন: প্রধানমন্ত্রী ৫০ বছর বয়সীরা পাবেন বুস্টার ডোজ বিশ্বের চট্টগ্রাম এসোসিয়েশন ও সমিতিগুলির ভার্চুয়াল সভায় বিশ্ব চট্টগ্রাম উৎসব করতে “আন্তর্জাতিক চট্টগ্রাম সমন্বয় কমিটি” গঠিত রামুতে হেডম্যানকে কূপিয়ে হত্যা  ঈদগাঁওতে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দুরত্বসহ স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছেনা নারায়ণগঞ্জ সিটিতে আইভীর হ্যাটট্রিক জয়

জেলায় এক পশলা শীতবৃষ্টি,বাড়ছে শীতের তীব্রতা

  • আপডেট : শনিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৫
  • ৬৭ দেখা হয়েছে

এ.এম হোবাইব সজীব :
গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি জানান দিচ্ছে প্রচন্ড শীতের আগমনী বার্তা । কুয়াশার বেড়া-জালে ঘিরে আছে প্রকৃতি। আকাশে মেঘের ভেলা। সকাল থেকে সূর্যের আলোর দেখা নেই। শীতল হাওয়াও বেড়েছে। আর ঠান্ডা হাওয়ার আমেজে ভর করছে শীত। একটু একটু করে বাড়ছে শীতের তীব্রতা। শীতের দাপটে কাবু হয়ে পড়েছে জেলার ছিন্নমূল মানুষ গুলো। অপরদিকে দেশের বিভিন্ন জেলায় গতকাল শীতবৃষ্টি হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
এভাবে শীতল পরশে গতকাল শুক্রবার সাত সকাল থেকে গুর গুর গুরুম শব্দে বৃষ্টি শোনা গেলো। মেঘের আনাগোনাও ছিল কুয়াশার মতোই। যদিও কুয়াশার কারণে মেঘগুলো ঠিক পুরোপুরি দেখা যায়নি। কিন্তু মাঝে মধ্যে মেঘের গর্জন। গর্জনের পরই বৃষ্টি। তারপর ছিটেফোঁটা বৃষ্টি। ক্ষাণিকটা বাড়লো। সকালে ঝরঝরিয়ে বৃষ্টি নামলো। বৃষ্টির ফোঁটাগুলো ছিল বেশ বড় বড়। আর হঠাৎ ঝড়ে পড়া এক পশলা বৃষ্টিতে ভিজে গেল জেলার শহরও শহরতলীসহ চকরিয়া, পেকুয়া, মহেশখালী, কুতুবদিয়া, উখিয়া,টেকনাফ রামু উপজেলার মাটি, রাস্তা-ঘাট, গাছ-পালা আর বাড়িঘর। তবে শীতের সকালের এ বৃষ্টি খুব বেশি সময় স্থায়ী হয়নি। আকাশে মেঘের ভেলায় ঠান্ডা আবহাওয়ায় বইছে হিমেল বাতাস। সকলের মাঝে এভাবেই ছড়িয়ে পড়ার আগমনী শীতের আমেজ। শীতের শীতল হাওয়া আর বৃষ্টির কারণে সকালে রাস্তা-ঘাট ছিল অনেকটা জনশূন্য। রাস্তায় যানবাহন চলাচল তেমন চোখে পড়েনি। তবে বৃষ্টি থামলে বেলা বাড়ার সাথে সাথে কর্মব্যস্ত মানুষ নিজ নিজ কর্মস্থলে ছোটে। সকাল থেকে সূর্যের মুখ কেউ দেখেনি। তবে আজ শনিবার আকাশে রোদের দেখা মিলছে।
আবহাওয়া অধিদপ্তর সুত্রে জানা গেছে, বৃষ্টির কারনে ঠান্ডা আরো বাড়তে পারে। কক্সবাজার শহর ও শহরতলী এলাকাসহ ৮ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের দরিদ্র পরিবারের লোকজন কোনঠাসা হয়ে পড়েছে। ফুটপাত গুলোতে ছিন্নমুল মানুষদের অবস্থা করুন। বাজারের ফুটপাত ব্যবসায়ীরা বেচাকেনা দুর্ভোগে পড়েছে। হঠাৎ ঠান্ডা বেড়ে যাওয়ায় নি¤œ এলাকার দরিদ্র লোকজন কাপঁছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর
© ২০১৪ - ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত।
Site Customized By NewsTech.Com