1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

টেকনাফে ভোটার হালনাগাদে চরম ফরম সংকট : ভোটার প্রত্যাশীদের বিক্ষোভ

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৭ আগস্ট, ২০১৫
  • ২৮ দেখা হয়েছে

ছৈয়দুল আমিন চৌধুরী, টেকনাফ :
সরকার ঘোষিত দেশব্যাপী ভোটার হালনাগাদ চলছে। তারই ধারাবাহিকতায় সীমান্ত উপজেলা টেকনাফে গত ১৬ আগস্ট থেকে হালনাগাদ শুরু হয়েছে। শতকরা ৮% ফরম বিতরন করায় ভোটার প্রত্যাশি শত শত নতুন ভোটার নিজেরা নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। একাধিক ভোটার প্রত্যাশি ও অভিভাবক ক্ষোভের সাথে অভিযোগ করে বলেন- তথ্য সংগ্রহকারীরা ঘরে ঘরে না গিয়ে বৈষম্য করছেন সাধারন ভোটারদের উপেক্ষা করে তারা প্রভাবশালীদের বাড়িতে বসে হালনাগাদ করছেন। ২৭ আগস্ট সকাল ১১টায় হ্নীলা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড়েরর শতশত অধিকার বঞ্চিত নারী-পুরুষ রাস্তার পাশ্বে দাড়িয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। স্থানীয় ইউপি মেম্বার জাফর আলম বলেন, আমার ওয়ার্ড়ে ৩’ শতাধিক ভোটার উপযুক্ত নাগরিক রয়েছে কিন্তু তৎমধ্যে ১৫০ জন ফরম পেলেও আরো ২’শতাধিক নারী- পুরুষ ভোটার ফরমের অভাবেনাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তিনি আরো জানান,উপজেলা নিবার্চন অফিস থেকে গতকাল আরো ২০ টি অতিরিক্ত ফরম প্রদান করা হলেও তথ্য সংগ্রহকারী মনগড়া ভাবে ফরম পুরণ
করে। কাকে করা হয়েছে জানতে চাইলে সদুত্তোর দিতে পারেননি। এব্যাপারে ওই এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য
সংগ্রহকারি নুর মুহাম্মদের মুটোফোন (০১৮২০৫৩৮৯২৩) নাম্বারে ফোন করা হলে সংযোগ না পাওয়ায় বক্তব্য পাওয়া
যায়নি। অপরদিকে হ্নীলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড়ের একাধিক ভোটার প্রত্যাশি ও অভিভাবক অভিযোগ করে বলেন- প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও হালনাগাদ শুরু হতে না হতে ফরম শেষ হয়ে গেছে। যা বরাদ্ধ দেয়া হয়েছে তা প্রভাবশালীদের বাড়িতে বসে তাদের পছন্দমত ব্যক্তিদের হালনাগাদের আওতায় আনা হয়েছে। আমরা বার বার অধিকার বঞ্চিত হচ্ছি।
এব্যাপারে দায়িত্বরত তথ্য সংগ্রহকারী মোহছন আলির সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান- ৮% বরাদ্ধকৃত ফরম যারা আগে আবেদন করেছেন তাদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে হালনাগাতের আওতায় আনা হয়েছে। ফরম সংকটের কারনে অনেকের বাদ পড়া খুবই দুঃখজনক।
এলাকার সচেতন মহল দ্রুত সময়ের
মধ্যে উপযুক্ত নাগরিকদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমানের ফরম বিতরনের মাধ্যমে হালনাগাদের আওতায় আনা জোর দাবী জানান।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com