টেকনাফে যুবকের উপর হামলা ও ছিনতাই

বার্তা পরিবেশক
টেকনাফে পূর্ব ঘটনার জেরে ছৈয়দুর রহমান (২৪) নামে এক যুবককে মারধর ও টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনতাই করার অভিযোগ উঠেছে।
গতকাল শনিবার বিকেল ৩টার দিকে সদর ইউনিয়নের লেঙ্গুরবিল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।
ছৈয়দুর রহমান বাহারছড়া ইউনিয়নের নোয়াখালী পাড়ার শামশুল আলমের পুত্র।
অভিযুক্তরা হলেন, লেঙ্গুরবিল গ্রামের ইউনুছের পুত্র রেজাউল করিম (২৪), ইউনুস ড্রাইভারের পুত্র শওকত (২২) ও দরগাহ ছড়ার মোহাম্মদ আলীসহ অজ্ঞাতনামা আরো কয়েকজন।

জানা যায়, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের লেঙ্গুরবিল গ্রামের রেজাউল করিমের সাথে নোয়াখালী পাড়ার স্থানীয় দোকানদার আতিক উল্লাহর সাথে অনেকদিন আগে পান কেনা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। কাটাকাটি এক পর্যায়ে মারামারিতে পরিণত হলে ভিকটিম ছৈয়দুর রহমানসহ স্থানীয় এলাকাবাসী ঘটনা সমাধানে এগিয়ে আসে এবং রেজাউল করিম ও আতিক উল্লাহর বিরোধের বিষয়টি সমাধান করে। সমাধান শেষে যে যার মত বাড়ি চলে যায়। কিন্তু এ সমাধানে সন্তুষ্ট না হয়ে রেজাউল করিম ঘটনার পর থেকে নোয়াখালী পাড়া এলাকার কোন মানুষ লেঙ্গুরবিল হয়ে টেকনাফ সদরে ঢুকলেই বিচার সালিশের তোয়াক্কা না করে গাড়ি থেকে নামিয়ে মেরে জখম করে এবং হাত পা ভেঙ্গে দেয়।
এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল ছৈয়দুর রহমানের উপর হামলা চালিয়ে তাকে প্রাণে মেরে ফেলার চেষ্টা করে রেজাউল করিম বাহিনী।

স্থানীয় ও ছৈয়দুর রহমানের পরিবার সূত্রে জানা যায়,
গতকাল ৩ টার দিকে টেকনাফ থেকে টমটমযোগে বাড়ি ফেরার সময় রাস্তা আটকে লেঙ্গুরবিল গ্রামের রেজাউল করিম, শওকত ও মোহাম্মদ আলীসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন সন্ত্রাসী তাকে গাড়ি থেকে নামিয়ে তার উপর হামলা চালায় এবং বেদড়ক মারধার করে টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র কেড়ে নেয়, এতে সে গুরুতর আহত হয়।
পরে স্থানীয়রা আহত ছৈয়দুর রহমানকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে টেকনাফ সদর হাসপাতালে ভর্তি করায় সেখান থেকে তাকে কক্সবাজার সেন্ট্রাল হাসপাতালে রেফার করা হয়।
উল্লেখ্য, এর আগে একই ঘটনার জের ধরে রেজাউল বাহিনীর হামলা ও নির্যাতনের শিকার হয়েছে নোয়াখালী পাড়ার মোহাম্মদ উল্লাহ, নুর মোহাম্মদ, নবী হোছাইন ও ইব্রাহীম প্রমুখ।
তাদেরও হাসপাতালের বেডে যেতে হয়েছিল রেজাউল করিম ও তার বাহিনীর বেদড়ক মার খেয়ে।
এ ব্যাপারে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানকে অবগত করা হলে পূর্ব ঘটনার বিচারেও অভিযুক্তদের হাজির করতে পারেন নাই এবং এ ঘটনার অভিযোগের বিচারেও তারা হাজির হয় না ও কোন কথা শুনে না বলে তিনি বিজ্ঞ আইনের আশ্রয় নেয়ার পরার্মশ দেন বলে সূত্র জানায়।
ছৈয়দুর রহমানের গুরুতর আহত ও ক্ষয়ক্ষতির জন্য বিজ্ঞ আদালতে মামলা করার প্রস্তুতি চলছে বলে পরিবার সূত্রে জানায়।
উক্ত সন্ত্রাসীদের তান্ডবের কারণে নোয়াখালী পাড়ার মানুষ লেঙ্গুরবিল হয়ে টেকনাফ সদরে ঢুকতে না পারায় যোগাযোগ ব্যবস্থাসহ বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে । এ সমস্যা সমাধানের জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করে এলাকাবাসী।

উপদেষ্টা সম্পাদক : হাসানুর রশীদ
চেয়ারম্যান : মুহাম্মদ শাহজাহান

নির্বাহী সম্পাদক : ছৈয়দ আলম

যোগাযোগ : ইয়াছির ভিলা, ২য় তলা শহিদ সরণী, কক্সবাজার। মোবাইল নং : ০১৮১৯-০৩৬৪৬০

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Email:coxsbazaralo@gmail.com

© 2016 allrights reserved to Sarabela24.Com | Desing & Development BY PopularITLtd.Com, Server Manneged BY PopularServer.Com