1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

টেকনাফে ৩চাকার যান বন্ধ করায় দূর্ভোগে জনসাধারণ

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট, ২০১৫
  • ৩৩ দেখা হয়েছে

সাইফুদ্দীন মোহাম্মদ মামুন, টেকনাফ :
এবারের ঈদের আগে-পরের কয়েক দিনে সড়ক ও মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাসের সাথে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক সড়ক দুর্ঘটনায় প্রায় দু’শতাধিক মৃত্যু ও কয়েকশ যাত্রী আহত হওয়ার পর সড়ক পরিবহনে নিরাপত্তার প্রশ্নটি বড় হয়ে ওঠে। এ অবস্থায় গত ২৭ জুলাই সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় মাত্র চার দিনের সময় দিয়ে মহাসড়কে তিন চাকার যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কে সব ধরনের তিন চাকার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে টেকনাফ উপজেলার হাজার হাজার শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের মধ্যে চরম দূর্ভোগের সৃষ্টি হয়েছে। টেকনাফ সড়কের পার্শ্বেই প্রতিষ্টানগুলোর অবস্থান এবং বিকল্প রাস্তাঘাট না থাকায় অটো রিক্সা,টমটম ও সিএনজি গাড়ী চলতে পারেনা। প্রতিটি প্রতিষ্ঠান থেকে ছাত্র/ছাত্রীর বাড়ীর দূরত্ব কম বেশী ১৩-১৫ কি:মি: পর্যন্ত, রাস্তায় পরিবহণ ব্যবস্থা নেই। স্পেশাল সার্ভিস নামে যে বাস চলাচল করে তাতে স্কুলগামী-মাদ্রাসাগামী ছাত্র/ছাত্রীদের পরিবহন করেনা। সাধারণ যাত্রী সেবায় নিমিত্তে লোকাল কোন বাস নেই বললেই চলে। এমতাবস্থায় উক্ত সড়কে অটো রিক্সা, টমটম ও সিএনজি চলাচল বন্ধ করে রাখলে দীর্ঘদিনের অর্জিত লক্ষ্য মাত্রা নিমিষেই ধংস হয়ে যাবে। অনেকের কথা মতে এটি একটি উপজেলা সড়ক। সড়ক দিয়ে সবসময় সময়মত বাস না পাওয়ায় এ উপজেলার মানুষ অটো রিক্সা, টমটম ও সিএনজি নিয়ে চলাচল করে। এসব অটো রিক্সা, টমটম ও সিএনজি বন্ধ করে দেওয়ায় উপজেলার হাজার হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের চরম দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তাই সংশ্লিষ্ট প্রশাসনকে হাজার হাজার শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের দিকে থাকিয়ে তাদের পড়া-লেখা নষ্ট হচ্ছে বিধায় এসব অটো রিক্সা, টমটম ও সিএনজি টেকনাফ-কক্সবাজার সড়কে চলতে দেয়ার জন্য তারা সংশি¬ষ্ট কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের দৃষ্টি আর্কষন করেন।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com