1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

ডিজিটাল যোগে হাত বাড়ালেই তথ্য সেবা : উপকৃত হচ্ছে লোকজন

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৫
  • ৩৭ দেখা হয়েছে

এম আবু হেনা সাগর :
কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে বর্তমান সরকারের আমলে ডিজিটার যোগে হাতের কাছে এখন তথ্য সেবা কেন্দ্র। এতে করে বৃহত্তর এলাকার সাধারণ লোকজন নানাভাবে উপকৃত হচ্ছে। সারা দেশের ন্যায় সদরের ছয় ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য সেবা কেন্দ্র হাতের নাগালে থাকায় সকল বিষয়ে তথ্যের সেবা নিয়ে উপকৃত হচ্ছে বৃহত্তর এলাকার গ্রামাঞ্চলের সাধারণ মানুষ। প্রত্যেক সেবা কেন্দ্রে কর্মকতারা সার্বক্ষণিক নিজেদেরকে নিয়োজিত করে রেখেছেন গ্রামের জনগণকে সেবাদানের জন্য। যার কারণে হাটে-বাজারে বিভিন্ন অফিসের দুয়ারে গিয়ে এখন আর ঘন্টার পর ঘন্টা বসে থাকতে হয় না।
জানা যায়, সদরের আওতাধীন ছয় ইউনিয়নের মধ্যে চৌফলদন্ডি, পোকখালী, ইসলামপুর, ইসলামাবাদ, জালালাবাদ ও ঈদগাঁওয়ের ১২ জন তথ্য সেবা উদ্যোক্তা কাজ করছেন নিবিড় ভাবে। বিভিন্ন সেবাকেন্দ্রে আসা বেশ ক’জন লোকের সাথে আজকের কক্সবাজারের এ প্রতিনিধির কথা হলে তারা- তথ্য সেবায় নানা সুযোগ-সুবিধা পাচ্ছে এবং তাৎক্ষনিক কাজ কর্ম শেষ করতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছে তারা। বর্তমান সরকার তথ্য সেবায় একধাপ এগিয়ে গেছে বলেও জানান। ঈদগাঁও ইউনিয়ন তথ্য সেবা কেন্দ্রের উদ্যোক্তা ছরওয়ার সিফার মতে, তার কেন্দ্র থেকে যাবতীয় তথ্য প্রদানে তিনি সব সময় কাজ করে যাচ্ছেন। এ ছাড়া সরকারী ভাবে দেয়া প্রজেক্টর দ্বারা গণসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে নানা সামাজিক প্রচারণা প্রদর্শনও করছেন এবং বর্তমানে সাধারণ লোকজনকে ৪১টি সেবার মধ্যে ২০টি সেবা প্রদান করছে এ তথ্য সেবা কেন্দ্র। বাকীগুলি অপেক্ষমান রয়েছে বলে জানান। ঈদগাঁও তথ্য সেবা কেন্দ্রে আসা আহমদ হোসেন (৬০), তাহের (৩৫), আজিম (৩৮), কাশেম(৩০) জানান, সেবা কেন্দ্রে এসে তারা অনেক ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেয়েছেন। এভাবে তথ্যসেবা যদি সাধারণ মানুষের সেবা করে থাকে তাহলে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকার আরেকধাপ এগিয়ে যাবে। কয়েক শিক্ষার্থীর মতে, সাধারণ জনগণ তথ্য সেবা কেন্দ্র থেকে বিভিন্ন বিষয়ে বিনামূল্যে সেবা নিতে পারছে বলে তারা রক্ষা পাচ্ছে চরম হয়রানী থেকে। এ ধারা অব্যাহত রাখার আহবান জানান তারা এবং এটি একটি সরকারের মাইলফলক বলে জানান। সচেতন মহলের মতে, তথ্য সেবা হাতের নাগালে আসার ফলে বৃহত্তর এলাকার গ্রামগঞ্জের সাধারণ লোকজনকে আর অযথা ভোগান্তি আর হয়রানিতে পড়তে হচ্ছে না। কারণ হাত বাড়ালেই ডিজিটাল যোগে নানা তথ্য পেয়ে যাচ্ছে। তার জন্য বর্তমান সরকারের তথ্য সেবার মত মহৎ কাজকে সাধুবাদ জানান।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com