1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. joaopinto@carloscostasilva.com : randaldymock :
  3. makaylabeaurepaire@1secmail.com : scotty7124 :
  4. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  5. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  6. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

তছনছ সোনার স্বপ্ন

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২৮ জুলাই, ২০১৫
  • ৩৬ দেখা হয়েছে
খাইরুল আমিন। কক্সবাজারের শহরের পরিচিত মুখ। ব্যবসায়ী ও রাজনীতিবিদ দু’দিক দিয়ে তিনি পরিচিতি অনেকে কাছে। মহেশখালীর শাপলাপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা এই খাইরুল আমিন ব্যবসার খাতিরে দীর্ঘদিন ধরে কক্সবাজার শহরের সার্কিট হাউস কবরস্থানপাড়ায় বসবাস করছিল। এক ছেলে এক মেয়ে নিয়ে সোনায় সোহাগায় কাটছিল তাদের জীবন। কে জানতো তাদের জন্য অপেক্ষা এক বিষাদ বিচ্ছেদ? কিন্তু প্রকৃতির অমোঘ বাস্তবতায় ভালোবাসা বাঁধন ছিঁড়ে চারজনের দু’জনই আজ না ফেরার দেশের বাসিন্দা। এই কালো রাতে ব্যবসায়িক কাজে খাইরুল আমিন থেকে ছিলেন বাইরে। পরম আদরে দু’সন্তানকে বুকে নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েছিলেন মা লুৎফুন্নেসা জুনু। কিন্তু এই ঘুম যে অনন্তকালের জন্য তা হয়তো তিনি জানতেন না। জানলে কী দু’সন্তান আর নিজেকে জমদূতের কাছে সঁপে দিতেন? তবে ভাগ্য ভালো না খারাপ তা বলা না গেলেও মা ও আদরের ছোট বোনকে মৃত্যুর কাছে সঁপে দিয়ে বাবার কাছে ফিরে এলেন ছেলে আয়াত। এটাইতো বিধির বিধান! আজ বাবা-ছেলে আর মা-মেয়ে জনমের দু’পারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। ভেঙে গেছে সাজানো সোনার সংসার!
মৃত্যুর কাছে পরাজয় হওয়া সদ্য ইন্টারমিডিয়েটে ভর্তি হওয়া কিশোরী রীনা কথাও কম কিসে। মেয়েটি হয়তো স্বপ্নরাঙা জীবনকে অনন্য উচ্চ নিতে বদ্ধপরিকর ছিলেন। তাই মায়ের স্নেহময় নীড় ছেড়ে এসেছিলেন খালার আঙিনায়। কিন্তু মায়ের অতুলনীয় নীড়ে ফেরা চিরতরে ছিন্ন হলো তা কী জানা ছিল না? জানলে মা-মেয়ে কেউ কাকে ছাড়তো না নিশ্চিত!
শাহ আলম-রাবেয়া আকতারের স্বপ্ন কাহিনীও এর চেয়ে ভিন্ন হবে বলে মনে হয় না!
বা অন্য কোন কিছু ধারা আঘাত প্রাপ্ত হয়ে ডলফিনটি মারা যেতে পারে।

এই বিভাগের আরও খবর

  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com