1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

তীব্র যানজটে নাকাল কক্সবাজারবাসী

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৬ জুলাই, ২০১৫
  • ২৭ দেখা হয়েছে

বলরাম দাশ অনুপম, কক্সবাজার :
পর্যটন শহর কক্সবাজারে যানজটের মাত্রা অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছেছে। বিশেষ করে তীব্র আকার ধারণ করেছে রিক্সা ও টমটম জট। এতে করে চরম দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে শহরবাসী। একদিকে গরমের তীব্রতা অন্যদিকে মারাত্মক যানজট সবমিলিয়ে রোজাদারদের ভোগান্তিটা বেড়েই চলেছে। ফলে যানজটে নাকাল শহরবাসীকে ১০ মিনিটের পথ পাড়ি দিতে সময় লাগছে আধ থেকে ১ ঘন্টা। যানজট নিরসনে প্রশাসনের নেয়া কোন পদক্ষেপই কাজে আসছে না। সর্বশেষ রমজান মাস উপলক্ষে বাড়তি ২৫ জন কমিউনিটি ট্রাফিক পুলিশের সদস্য সংখ্যা বাড়ানোর পরও যানজট নিয়ন্ত্রণে আসছে না। সকাল থেকে দুপুর আবার বিকাল থেকে রাত প্রায় ১১ টা পর্যন্ত শহরের বাজারঘাটা, লালদিঘীর পাড়, ভোলা বাবুর পেট্রোল পাম্প, বার্মিজ মার্কেট, বড় বাজার, এন্ডারসন রোড এসব এলাকায় যানজট লেগেই থাকে। এতে করে যেমন করে মানুষ কর্ম ঘন্টা নষ্ট হচ্ছে, ঠিক তেমনি ভাবে নষ্ট ব্যাঘাত ঘটছে মানুষের নিত্য নৈমত্তিক কর্মকান্ডেও। তবে ট্রাফিক পুলিশের পক্ষ থেকে যানজটের কারণ হিসেবে সড়কের বেহাল দশা, অপর্যাপ্ত রাস্তা না থাকা এবং টমটম ও রিক্সা বেড়ে যাওয়াকেই দায়ী করা হচ্ছে। কক্সবাজার শহরে ব্যবসার সুবাদে বসবাস করছে দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে ফিরোজ মিয়া নামের এক ব্যক্তি। এই দীর্ঘ সময়ে এরকম যানজট দেখেননি তিনি। গত এক সপ্তাহ ধরে যানজটে নাকাল হয়ে পড়েছে নগরবাসী। অন্যদের মতো ফিরোজ মিয়াও যানজটের চরম দুর্ভোগের বনর্না দেন এভাবে। রিক্সা আর টমটমের শহরে কক্সবাজার পা ফেলায় যেন আজন্ম পাপ হয়েছে। শহরের লালদিঘীর পাড় থেকে বার্মিজ মাকের্ট পযন্ত ১ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিতে আধ থেকে পৌণে এক ঘন্টা সময় লেগে যায়। আর যারা আদালতে মামলায় হাজিরা দিতে আসেন বা অফিসের কাজে আসেন তারা কখনোও সময়মতো পৌঁছতে পারছেন না। যানজটের কারন হচ্ছে লাইসেন্সধারী ও লাইসেন্স বিহীন রিক্সার ছড়াছড়ি। কক্সবাজার সিভিল সোসাইটির সভাপতি আবু মোর্শেদ চৌধুরী বলেন-গত বেশ কয়েকদিন ধরে যানজটের মাত্রা যেভাবে বেড়ে গিয়েছে তাতে কোন যানবাহন নিয়ে শহরে চলাচল করাই দায় হয়ে পড়েছে। এর জন্য তিনি সুষ্ঠ ট্রাফিক ব্যবস্থা এবং যানবাহন চালকদের সচেনতনার উপর জোর দেন। অন্যদিকে জনবল সংকটের মধ্যে দিয়েও দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছে কক্সবাজার ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরা। ট্রাফিকের সিনিয়র সার্জেট জাকির হোসেন বলেন-যানজট নিয়ন্ত্রণে ট্রাফিক পুলিশ সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে। তবে সড়কের বেহাল দশা আর বৃস্টি দিলে বৃষ্টি পরবর্তী কাদা খন্দেকের কারণে যানজট বাড়ে বলে তিনি জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com