1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
শিরোনাম :
হ্নীলায় টেকনাফ সাংবাদিক সমিতি (টেসাস) এর কার্যালয় উদ্বোধন আমি মরে গেলে আমার সব সৃষ্টি ধ্বংস করো- কবীর সুমন রাত ৮টায় এল ক্লাসিকো যুদ্ধে বার্সা-রিয়াল করোনায় আরও ১৯ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১০৯৪ সাংবাদিকনেতা গাজীর মুক্তির দাবিতে কক্সবাজারে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কক্সবাজার প্রধান সড়ক বিএস মতে সড়ক বিভাগের অধিগ্রহণকৃত জমিতেই নির্মিত হবে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির শোক দুঃসময়ে আইনি লড়াইয়ে এগিয়ে আসেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক: প্রধানমন্ত্রী সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই টেকনাফ পৌর-ছাত্রলীগের বিশেষ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ক্ষমতা নিয়ে ভারতকে মোশাররফের হুঁশিয়ারি

  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০১৬
  • ১০ দেখা হয়েছে

পাকিস্তানের সাবেক সেনা শাসক পারভেজ মোশাররফ মন্তব্য করেছেন, ভারত আদতে হুমকি দেওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে রয়েছে। তবে তাদের নয়, পাকিস্তান সেনাবাহিনীরই ক্ষমতা রয়েছে বাস্তবে সত্যিকারের কিছু করার।
অল পাকিস্তান মুসলিম লীগের ১৬তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে সভাপতি মোশাররফ টেলিফোনে দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে এমন মন্তব্য করেন।
মোশাররফ অভিযোগ করেন, নিজ দেশে বসবাসকারী সংখ্যালঘুদের শত্রুতে পরিণত হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, ‘ভারতের এটা বোঝা উচিত যে পাকিস্তান ভুটান নয়। ভারতের মাটিতে হামলা হলেই পাকিস্তানকে দোষারোপ করাটা তাদের অভ্যাসের অংশ।’
এরআগে পাকিস্তানে সামরিক শাসনের অপরিহর্যতার পক্ষে সাফাই গাইতে গিয়ে সাবেক সেনা শাসক পারভেজ মোরাররফ মন্তব্য করেন, দেশের সমাজ ব্যবস্থার সঙ্গে মানান হয়, এমন কোনও গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা এখানে জারি করা যায়নি। সে কারণেই বারবার সেনা বাহিনীকে শাসন ক্ষমতা নিতে হয়েছে।
ওয়াশিংটন আইডিয়াস ফোরামে বৃহস্পতিবার সাক্ষাৎকার দিয়েছেন তিনি। সেই সাক্ষাৎকারের ভিত্তিতে করা এক প্রতিবেদনে সাবেক পাকিস্তানি জেনারেলের এই মন্তব্যের কথা জানায় ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। এতে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর রাজনীতিতে আসা ঠেকাতে দেশের সমাজ ব্যবস্থার উপযোগী রাজনৈতিক কাঠামো গড়ে তোলার তাগিদ দেন মোশাররফ।
প্রায় এক দশক দেশ শাসন করা পারভেজ মুশাররফ ২০০৮ সালে ক্ষমতা ছাড়ার পর স্বেচ্ছা নির্বাসনে যান। চার বছর লন্ডন ও দুবাইয়ে কাটিয়ে ২০১৩ সালে নির্বাচনের আগে দেশে ফিরে বেশ কয়েকটি মামলার মুখে পড়েন তিনি। তবে অযোগ্য ঘোষিত হয়ে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারা এবং ক্ষমতায় থাকাকালে বেলুচিস্তানের জাতীয়তাবাদী নেতা আকবার বাগতি হত্যাকাণ্ড ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনজীর ভুট্টো হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় দায়ের মামলায় বিচার শুরুর পর ফের দেশ ছাড়েন সাবেক এই সেনাশাসক।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com