1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

পেকুয়ায় এক সংবাদকর্মীর প্রাণনাশের হুমকি

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ১০ দেখা হয়েছে

পেকুয়া প্রতিনিধি :
পেকুয়া উপজেলায় কর্মরত জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় পত্রিকার এক সংবাদকর্মীকে প্রকাশ্যে ও ফেসবুক ষ্ট্যাটাসের মাধ্যমে বার্তা পাঠিয়ে হুমকি দেওয়ার গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় স্থানীয় বিএনপি-ছাত্রদলের ২৩জনের নামোল্লেখ করে স্থানীয় পেকুয়া থানায় সাধারান ডায়েরী (জিডি) রুজুর খবর পাওয়া গেছে।
গত ১৩সেপ্টম্বর রোববার পেকুয়া থানায় সাধারান ডায়েরীটি লিপিবদ্ধ করেছেন জাতীয় দৈনিক ও কক্সবাজার থেকে প্রকাশিত দৈনিক বাঁকখালী পত্রিকার পেকুয়া প্রতিনিধি সাংবাদিক মো. ফারুক। যার জিডি নং ৪৩৭/১৫।
জিডি সূত্রে জানা গেছে, গত ৬ আগষ্ট দুপুরে পেকুয়া উপজেলা সদরে অবস্থিত সরকারী ডাকবাংলোতে প্রবেশ করে অনুমোদন ব্যতিত স্থানীয় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা গোপণ বৈঠকে মিলিত হন। এসময় ছাত্রদলের বৈঠকে হট্টগোলের সংবাদ পেয়ে তার খবর সংগ্রহ করতে ঘটনাস্থলে ছুটে যান সাংবাদিক মো. ফারুক।
এরপর সাংবাদিক মো. ফারুক ছাত্রদলের গোপন বৈঠকে ‘হট্টগোলের’ বিষয়ে বিভিন্ন অনলাইন ও প্রিন্ট মিডিয়ায় বস্তুনিষ্ট ও তথ্য নির্ভর সচিত্র সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে স্থানীয় বিএনপি-ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। এনিয়ে ওই সাংবাদিককে অব্যাহতভাবে হত্যার হুমকি দেয়া ছাড়াও বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম হিসাবে পরিচিত ফেসবুকের মাধ্যমে উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কামরান জাদিদ মুকুট, ছাত্রদল নেতা মো. হেলাল উদ্দিন ও শোয়াইবসহ বিএনপির আরো কিছু নেতাকর্মী বিতর্কিত মন্তব্য ছুড়েন।

এছাড়াও নাশকতাসহ বহু মামলার আসামী ছাত্রদল নেতা মুকুট সম্প্রতি সময়ে তার ফেসবুক একাউন্টে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের ‘কুকুরের মতো পিঠিয়ে’ এলাকা ছাড়া করার অব্যাহত হুংকারও ছুড়ছেন। এমনকি নানা সময়ে ওই বিতর্কিত ছাত্রদল নেতা স্থানীয় সংবাদকর্মীদের নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে সাংবাদিকদের তোপের মুখে ফেলার পাঁয়তারায় লিপ্ত হয়েছেন।

সাংবাদিক ফারুক অভিযোগ করেছেন, প্রতিনিয়তই তাকে ফেসবুকের মাধ্যমে ও সর্বশেষ গত রোববার সন্ধ্যায় পেকুয়া বাজারে ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা প্রকাশ্যে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ায় তিনি বিষয়টি থানাকে অবহিত করে জানমালের নিরাপত্তা ও আইনগত সহায়তা প্রার্থনা করে সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেছেন।

পেকুয়া থানার ওসি মো. আবদুর রকিব জিডির সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, বিষয়টি তদন্ত করে ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেবে পুলিশ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com