1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

পেকুয়ায় ফের বন্যায় চরম ভোগান্তিতে মানুষ : খাবার ও বিশুদ্ধ পানির তীব্র সংকট

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ২৭ জুলাই, ২০১৫
  • ৮ দেখা হয়েছে

ইমরান হোসাইন, পেকুয়া :
জুন মাসের শেষের দিকের বন্যার ক্ষয়-ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই ফের বন্যায় প্লবিত হয়েছে কক্সবাজারের উপকূলীয় উপজেলা পেকুয়া। কয়েকদিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে মাতামুহুরী নদীর পানি বেড়ীবাধের ভাঙ্গা অংশ দিয়ে ক্রমাগত ঢুকে প্লাবিত হওয়ায় ঘর-বাড়ি ফেলে নিরাপদ আশ্রয়ে ছুটছে এলাকার মানুষ। দুই-তিন সপ্তাহের ব্যবধানে ফের বন্যায় প্লাবিত হওয়ায় চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে বন্যা দূর্গত মানুষ। বন্যা দূর্গতদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী, খাবার ও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল হওয়ায় অনাহারে-অর্ধহারে দিন কাটাচ্ছে মানুষ।
বন্যার পানিতে এরইমধ্যে ডুবে গেছে অধিকাংশ ফসলি জমি, বাড়ি-ঘর, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।
প্রবল বর্ষণে শনিবার (২৫ জুলাই) দুপুর থেকে মাতামুহুরী নদীর শওকত পাড়ায় ভাঙন কবলিত বেড়িবাঁধ দিয়ে বলির পাড়া, মোরার পাড়া, সরকারী ঘোনা, হরিণাফাড়ী, বাঘগুজারা ও নন্দীর পাড়াসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম পানিতে ডুবে যায়।
এছাড়া পেকুয়া সদর ইউনিয়নের গোয়াখালী, ছিরাদিয়া, মইয়্যাদিয়া, টেকপাড়া, রাহাতজানি পাড়া, শেখেরকিল্লা ঘোনা ও বাইম্যাখালীসহ প্রায় ২০টি গ্রাম এবং শীলখালী ও বারবাকিয়া ইউনিয়নে আশঙ্কাজনকভাবে পানি বাড়ায় ১২টি গ্রাম প্লাবিত হয়।
প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করে নিজ উদ্যোগে শুকনো খাবার বিতরণ করছেন পেকুয়া সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি সভাপতি বাহাদর শাহ ,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাফায়েত আজিজ রাজু।
পেকুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মারুফুর রশীদ খান জানান, অতিবৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলের পানি বেড়ীবাধের ভাঙ্গা অংশ দিয়ে প্রবেশ করে ডুবে যাওয়া গ্রামগুলোর মানুষকে নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে এবং শুকনো খাবার সরবরাহ করা হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com