1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. joaopinto@carloscostasilva.com : randaldymock :
  3. makaylabeaurepaire@1secmail.com : scotty7124 :
  4. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  5. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  6. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

পোকখালীতে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে চিংড়িঘের প্লাবিত : পানীয়জলের তীব্র সংকট

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১ আগস্ট, ২০১৫
  • ৩০ দেখা হয়েছে

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও :
ঘূর্ণিঝড় কোমেনের প্রভাবে কক্সবাজার সদরের উপকূলীয় ইউনিয়ন চৌফলদন্ডী, ইসলামপুর ও পোকখালীর গোমাতলীর হাজার হাজার মানুষ নিদারুন দুর্ভোগ পোহাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় খাদ্য, পানীয়জল সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। চুলা জালাতে না পেরে ক্ষতিগ্রস্থরা চিড়া মুড়ি খেয়ে দিন পার করছে কোনভাবে। জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে উপকূলীয় এলাকার নিম্নাঞ্চল ও ১০ চিংড়িঘের। এতে অর্ধকোটি টাকার ক্ষতির আশংকা করছেন ঘের মালিকরা। পোকখালীর চেয়ারম্যানের মতে, তার ইউনিয়নের ৭, ৮ এবং ৯ ওয়ার্ড গত ২ দিন ধরে জোয়ারের পানি অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যাওয়াতে উত্তর, পূর্ব ও পশ্চিম গোমাতলীসহ বিশালকার এলাকা ৩/৪ ফুট ধরে পানির নিচে তলিয়ে গেছে। ইউনিয়নের পশ্চিম গোমাতলীর হামিজ্জিঘোনা, দক্ষিন ঘোনা, সোজার ঘোনা, বিরাশি ঘোনা, বোরাকঘোনা, কাটাঘোনা, মেজর ঘোনা, আব্দুল্লাখানের ঘোনা, এ ব্লক, ডি ব্লক, ও সি ব্লক ঘোনা জোয়ারের পানিতে নিমজ্জিত হয়ে গেছে। পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছে শত শত মানুষ।  ইসলামুপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের মতে, তার ইউনিয়নের পশ্চিম, উত্তর ও দক্ষিন খান ঘোনার সব চিংড়িঘের জোয়ারের পানিতে তলিয়ে গেছে। পানি বন্দি হয়ে আছে শত শত মানুষ। চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের মতে, তার ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল এখন ৩/৪ ফুট পানির নিচে রয়েছে। দূর্ভোগে পড়েছে ইউনিয়নের হাজার হাজার মানুষ। অপরদিকে চৌফলদন্ডীর কালু ফকির পাড়া গ্রামে পাহাড় ধ্বসে এক ব্যক্তি আহত হয়েছে। প্রবল জোয়ারের পানিতে বেশ কয়েক স্থানে ভেঙ্গে গেছে বেঁড়ী বাঁধ। বেড়ী বাঁধের ভাঙ্গা অংশ দিয়ে জোয়ারের পানি প্রবেশ করে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত। রাতদিন জোয়ার ভাটার প্রভাবে ঘরে ফিরতে পারছেনা মানুষ। ভেসে গেছে কয়েকশ একর চিংড়ি ঘের। পানিবন্দী মানুষ আশ্রয় নিয়েছে স্কুল, মাদ্রাসা এবং মসজিদে। লন্ডভন্ড হয়ে গেছে রাস্তা-ঘাট। এসব এলাকায় পানীয় জলের সংকট তীব্র আকার ধারণ করেছে। সরকারী সাহায্য প্রয়োজনের তুলনায় নিতান্ত অপ্রতুল হওয়াতে দুর্গত এলাকার জনগণ ত্রাণের পরিমান বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আবেদন জানিয়েছে।

এই বিভাগের আরও খবর

  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com