কক্সবাজারলীড

প্রকৃতি ও পরিবেশের ক্ষতি না করেই উন্নয়ন-এডিসি আশরাফুল আফসার

81views

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি :
কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার বলেছেন, প্রকৃতি ও পরিবেশের ক্ষতি না করেই উন্নয়ন কাজ করতে হবে। উন্নয়ন করতে গিয়ে যাতে সাধারণ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত না হয় সে বিষয়টি খেয়াল রাখা উচিত। জনগণের জন্যই উন্নয়ন। মানুষের প্রয়োজনেই সরকার। সরকার চাচ্ছে, সব মানুষকে সম্পৃক্ত রেখেই যাতে উন্নয়ন কাজ এগিয়ে যায়।
সোমবার (১১ নভেম্বর) সকালে জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে ‘প্রাণ, প্রকৃতি ও উন্নয়ন’ বিষয়ে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন জনসুরক্ষা মঞ্চ কক্সবাজারের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডিসি মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার এসব কথা বলেছেন।
সংগঠনটির সভাপতি এডভোকেট সাকি-এ-কাউছারের সভাপতিত্বে সভায় তিনি বলেন, আগামী ১ মাসের মাধ্যে কক্সবাজারে শিশু পার্কের কাজ দৃশ্যমান হবে। সমুদ্র সৈকতের সৌন্দর্য রক্ষায় যা করণীয় তাই করা হবে। পর্যটন শিল্পে ক্ষতি হয় এমন কাজ কাউকে করতে দেয়া হবেনা। সাগরপাড় থেকে সমস্ত অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে।
প্রধান অতিথি আরো বলেন, সরকারের একার পক্ষে উন্নয়ন কাজ সম্ভব নয়। জনগণকে এতে সম্পৃক্ত হতে হবে। সরকার ও জনগণের মধ্যে সেতুবন্ধন সৃষ্টি করতে পারলে সমাজ, দেশ অনেক দূর এগিয়ে যাবে। সকলে মিলে ঐক্যবদ্ধ হলে কক্সবাজারকে অবৈধ দখলমুক্ত করা সম্ভব।
মহেশখালীর মাতারবাড়ির ক্ষতিগ্রস্তদের প্রশ্নের জবাবে এডিসি বলেন, কয়লাবিদ্যুৎ প্রকল্পের কারণে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ পাবে। যারা বাদ পড়েছে তাদেরকেও তালিকার অন্তর্ভুক্ত করে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। তবে, উন্নয়ন কর্ম করতে গিয়ে কিছু অযাচিত মামলার কারণে প্রশাসনকে বেগ পেতে হয় বলে দুঃখ প্রকাশ করেন এডিসি মোহাম্মদ আশরাফুল আফসার।
জনসুরক্ষা মঞ্চ কক্সবাজারের সাধারণ সম্পাদক ইমাম খাইরের সঞ্চালনায় এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সোলাইমান, কক্সবাজার প্রেসক্লাবের সভাপতি মোহাম্মদ মাহবুবর রহমান, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. খাইরুজ্জামান, দৈনিক হিমছড়ি সম্পাদক ও সাংবাদিক ইউনিয়ন কক্সবাজারের সাধারণ সম্পাদক হাসানুর রশীদ, পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজারের সিনিয়র কেমিস্টস মো. কামরুল হাসান।
বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এসআইএম আকতার কামাল আজাদ, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অতিরিক্ত নগর পরিকল্পনাবিদ মো. জাহাঙ্গীর আলি, বিসিক কক্সাবাজারের সহকারী মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মুহাম্মদ হাফিজুর রহমান, কক্সবাজার পৌরসভার প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. খোরশেদ আলম, পাউবো জামে মসজিদের খতীব এডভোকেট হাফেজ মাওলানা রিদওয়ানুল কাবীর, বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি মুহাম্মদ উর রহমান মাসুদ, সেভ দ্যা নেচার অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মোয়াজ্জেম হোসেন, দৈনিক আপনকণ্ঠের নির্বাহী সম্পাদক এইচএম নজরুল ইসলাম, এডভোকেট নজরুল ইসলাম খাঁন, এডভোকেট আবু মুসা মোহাম্মদ, সিএইচআরডিএফ এর প্রধান নির্বাহী মো. ইলিয়াছ মিয়া। অনুষ্ঠানে জনসুরক্ষা মঞ্চ কক্সবাজারের সহসভাপতি মোহাম্মদ শাহাব উদ্দিন, এনজিও প্রতিনিধি পাইউমং চৌধুরী, জয়নাল আবেদীন, এরশাদ হোসাইনসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
মাতারবাড়ির ক্ষতিগ্রস্তদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন- মুহাম্মদ হামেদ হোছাইন মেম্বার, ছকুন তাজ আতিক মেম্বার, নুর মোহাম্মদ, সাহাদত হোসেন নাছির মেম্বার, আবদুল জব্বার।

Leave a Response