1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
শিরোনাম :
আমি মরে গেলে আমার সব সৃষ্টি ধ্বংস করো- কবীর সুমন রাত ৮টায় এল ক্লাসিকো যুদ্ধে বার্সা-রিয়াল করোনায় আরও ১৯ মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১০৯৪ সাংবাদিকনেতা গাজীর মুক্তির দাবিতে কক্সবাজারে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ কক্সবাজার প্রধান সড়ক বিএস মতে সড়ক বিভাগের অধিগ্রহণকৃত জমিতেই নির্মিত হবে ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও প্রধান বিচারপতির শোক দুঃসময়ে আইনি লড়াইয়ে এগিয়ে আসেন ব্যারিস্টার রফিক-উল হক: প্রধানমন্ত্রী সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার রফিক-উল হক আর নেই টেকনাফ পৌর-ছাত্রলীগের বিশেষ জরুরী সভা অনুষ্ঠিত দ্রুত সময়ের মধ্যে সিনহা হত্যা মামলার নিষ্পত্তি: র‌্যাব ডিজি

বাবা-মাকে নিয়ে নিজ ফ্ল্যাটে উঠছেন মুমিনুল

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৫ আগস্ট, ২০১৫
  • ১৬ দেখা হয়েছে

কক্সবাজার আলো ডেস্ক :
বাবা-মাকে যখন-তখন কাছে পেতেন না মুমিনুল হক। তাদের সঙ্গে দেখা করতে হলেও যেতে হত কক্সবাজারে। কিন্তু ব্যস্ত সময়সূচির কারণে সেটাও সম্ভব হত না। গাড়ি কিনেছেন অনেক আগেই। কিন্তু ঢাকায় নিজের কোনো স্থায়ী ঠিকানা ছিলো না ছোট্ট মুমিনুলের যেখানে বাবা-মাকে নিয়ে থাকতে পারবেন। বাবার স্নেহ আর মায়ের আদর থেকে বঞ্চিত হতে চাচ্ছেন না বলেই তাদের নিয়ে ঢাকায় চলে আসছেন টেস্টে বিস্ময়কর বালক মুমিনুল। রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় ফ্ল্যাট কিনেছেন নিজেদের জন্যে। ৮০ ভাগ কাজ শেষ। বাকি ২০ ভাগ হয়ে গেলেই কক্সবাজার থেকে বাবা-মাকে উড়িয়ে নিয়ে আসবেন চন্ডিকা হাথুরুসিংহের ‘মিনি’ (মুমিনুল হককে মিনি নামে ডাকেন হাথুরুসিংহে)।’ জাতীয় দলের হয়ে ১৭ টেস্ট খেলা মুমিনুল হক বাংরার চোখকে বলেন, ‘বসুন্ধরায় নিজের ফ্ল্যাট কিনলাম। নিজের মত করে সাজাচ্ছি। ডেকোরেশনের টুকিটাকি কাজ করছি। ছুটিটা কাজে লাগাচ্ছি এইত।’ ফ্ল্যাট কেনার কারণও জানালেন কক্সবাজারের এই তারকা। বাহাতি এই ব্যাটসম্যানের ভাষ্য, ‘সিরিজ বাদে তো সারাবছর ঢাকাতেই থাকা হয়। লিগগুলোর খেলা হলেও হোটেলে থাকতে হয়। যতটুকু সময় বাকি থাকে সে সময়টা বাবা-মার সঙ্গে থাকতে চাই। ঢাকা থাকলে ওই সময়গুলোতে নিজ থেকেও অনুশীলন করা যায়। বিশ্রামও ভালোমত নেওয়া যায়। বাবা-মাকে নিয়ে একসঙ্গে থাকার মজা ও শান্তি আলাদা। একা থাকলে আবার রান্না-বান্নার ঝামেলা থাকে। চাইলেও মায়ের হাতেও খাওয়া সম্ভব হয় না। কিছুদিন পর থেকেই মা সঙ্গে থাকবে। তাঁর হাতের রান্না করা খাবারও খাওয়া যাবে।’ঢাকায় নিজের ফ্ল্যাটের কাজ করানোর পাশাপাশি মিরপুরে নিয়মিত নিজ থেকে অনুশীলন করছেন মুমিনুল। অস্ট্রেলিয়া সিরিজের প্রস্তুতি একটু আগের থেকেই শুরু করে দিয়েছেন। ২৭ অক্টোবর থেকে জাতীয় দলের ফিটনেস ট্রেনিং শুরু হবে। এর আগে নিজের ভুল-ভ্রান্তিগুলো নিজ থেকে শুধরে নিচ্ছেন মুমিনুল। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এখন ব্যাটিংয়ে যে ভুলত্রুটিগুলো আছে তা নিয়ে কাজ করছি। মনযোগ যেন না হারায় সেদিকে খেয়াল রাখছি। টেস্টে ৩০-৪০ কোনো রান নয়। সেট হয়ে গেলে আত্মবিশ্বাসী হয়ে ইনিংস বড় করতে হবে। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ভালো করতে হলে নিজেদের সর্বোচ্চটুকু মাঠে দিতে হবে। তাদের বোলিং বিভাগ ব্যাটিংয়ের থেকেও বেশি শক্তিশালী।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com