বাহারছড়ায় ছাত্রলীগ নেতা মিজান জনপ্রিয়তার শীর্ষে

তারেকুর রহমান 

টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ন সাধারন সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান জনপ্রিয়তার শীর্ষে। তৃণমূল থেকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের নেতাদের মন কেড়েছে মিজান। তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগ বাহারছড়া ইউনিয়নের আসন্ন দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী হিসেবে এখন ব্যাপক আলোচনায়। অনেকের মতো তার জনপ্রিয়তা এখন শীর্ষে অবস্থান করছে।

জানা যায়, মিজানুর রহমান মিজান একজন মুজিব আদর্শের লড়াকু সৈনিক, যিনি মুজিব আদর্শকে বুকে লালন করে নি:স্বার্থ ভাবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের জন্য একনিষ্ঠ ভাবে কাজ করেন। তার রাজনৈতিক জীবনে তিনি বাহারছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ন আহবায়ক, একই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সহ সম্পাদক এবং রংগীখালাী ফাযিল ডিগ্রী মাদ্রাসা ছাত্রলীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক, ওমরগণি এম ই এস বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ এর ছাত্রলীগ নেতা হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন।

ছাত্র রাজনীতিতে একজন ক্লিন ইমেজের ছাত্রনেতা হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন তিনি। তাই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের অত্যন্ত জনপ্রিয় ছাত্রনেতা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক ছাত্রলীগ নেতা মিজানুর রহমান মিজান সুযোগ্য ছাত্রনেতা হওয়া সত্বেও ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কোন মূল্যবান পদে তার জায়গা হয়না। বারবার আলোচনায় থাকা এ ছাত্রনেতা তৃনমূল থেকে সর্বোচ্চ লেভেলের নেতাদের কাছে তার গ্রহণযোগ্যতা থাকার পরও দিনশেষে মূল্যবান পদ থেকে হারিয়ে যায়। তার এই দুভার্গ্যকে জয় করার লক্ষ্যে এবার দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে আবারও ছাত্রদের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে বাহারছড়া ইউনিয়ন থেকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া এই যুগে প্রকৃত ছাত্র নেতা-কর্মী পাওয়া যেখানে কঠিন; সেখানে একজন মিজানুর রহমান মিজান ব্যতিক্রম অবস্থানে রয়েছেন। অন্যদিকে, মিজানুর রহমান মিজান নিজেকে একজন ত্যাগী ছাত্রনেতা এবং বঙ্গবন্ধু শেখ হাসিনা’র ভ্যানগার্ড হিসাবে গড়ে তুলেছেন।
গত কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আলোচনার শীর্ষে থাকার পরও যখন পদটি তিনি পান নাই তখনও মন খারাপ না করে নিজেকে মুজিব আদর্শের সৈনিক হিসেবে ইউনিয়ন ছাত্ররাজনীতিতে তার ভূমিকা ও কর্মযজ্ঞ ছিল প্রশংসনীয়। আর দলের প্রতি নিবেদিত মিজানুর রহমান মিজান বিভিন্ন সময়ে বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবার নিয়ে কোন প্রকার কটুক্তি মেনে নেন নি, তাই সাথে সাথেই এর তীব্র প্রতিবাদ করেছেন।

সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী মিজান বলেন, আমি অতীতে দলের জন্য কাজ করেছি, বর্তমানে করছি এবং সামনের দিনগুলোতেও দলের জন্য কাজ সহ সকল প্রকার ভালোকাজ চালিয়ে যাবো। আর দায়িত্ব বাহারছড়া ছাত্রলীগকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে গড়ে তোলার আপ্রাণ চেষ্টা করবো, ইনশাআল্লাহ। আর আমি দীর্ঘদিন যাবৎ তৃণমুল ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীদের পাশে থেকে তাদের আশা-আকাঙ্খার কথা জেনেছি। সাধ্যমত তাদের সেবা করেছি। আর দলের পক্ষে কাজ করতে গিয়ে আমি বারবার নানান মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়েছি। তার পরেও দলীয় কর্মকান্ড ও আন্দোলনে সাহসী ভূমিকা পালন করেছি। এছাড়া সব সময় আন্দোলন কর্মসূচিতে থাকার চেষ্টা করেছি। যদি আমাকে এবার সুযোগ দেয়া হয়, সফল হতে পারব। সেই বিশ্বাস নিয়েই কাজ করছি। তবে আমার জেলা ও উপজেলার ছাত্রনেতা আমার শ্রদ্ধাভাজন বড় ভাইদের প্রতি আমার আস্থা ও বিশ্বাস রয়েছে। তাই শেখ হাসিনা’র হাতকে আরও শক্তিশালী করার জন্য নিরলস ভাবে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছি।
তিনি আরও বলেন, আমি রাজনীতি করি মানুষের জন্য। মানুষের সেবা ও কল্যাণই আমার অন্যতম লক্ষ্য। আর এর বিনিময়ে কেবল চাই সবার দোয়া এবং অকৃত্রিম ভালোবাসা। যা আমার অনাগত আগামীর পথ চলার পাথেয় হবে। এজন্য সকলের দোয়া ও সার্বিক সহযোগিতা কামনা করছি ।
এদিকে, তৃনমূলের অনেক ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা বলেন, এই সময়ের আলোচিত ছাত্রনেতা হলেন, মিজানুর রহমান মিজান। তিনি মুজিব আদর্শ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলস শ্রম সাধনা করেছেন। বাহারছড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পদ প্রার্থী হিসেবে তিনি এখন জনপ্রিয়তার শীর্ষে অবস্থান করছেন। তাই তিনিই এখন ব্যাপক আলোচনায়। আমরা তার সঙ্গে ছিলাম, আছি এবং থাকবো, ইনশাআল্লাহ।

উপদেষ্টা সম্পাদক : হাসানুর রশীদ
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহাম্মদ শাহজাহান

নির্বাহী সম্পাদক : ছৈয়দ আলম

যোগাযোগ : ইয়াছির ভিলা, ২য় তলা শহিদ সরণী, কক্সবাজার। মোবাইল নং : ০১৮১৯-০৩৬৪৬০

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Email:coxsbazaralo@gmail.com