1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
শিরোনাম :
সাংবাদিক নেতা রুহুল আমিন গাজী গ্রেপ্তার লাইফ সাপোর্টে ব্যারিস্টার রফিক-উল হক টেকনাফে চার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা রঙ্গিখালী মিনি টমটম চালক সমিতির পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠিত নাইক্ষ্যংছড়ি সীমান্তে বন্দুকযুদ্ধে রোহিঙ্গা মাদক পাচারকারী নিহত,ইয়াবা ও অস্ত্র উদ্ধার শিগগির জেলা ও মহানগর কমিটি ঘোষণা: কাদের করোনায় আরও ২৪ প্রাণহানি, নতুন শনাক্ত ১৫৪৫ স্বাস্থ্যবিধি মেনে কক্সবাজার জেলায় ২৯৯ মন্ডপে অনুষ্ঠিত হবে শারদীয় দুর্গোৎসব জলবায়ুর ন্যায্যতা ও লৈঙ্গিক ন্যায়বিচারের (Gender Justice) দাবিতে সমুদ্র সৈকতে পদযাত্রা (Walk for Survival) করেছে একশনএইড হচ্ছে না মাধ্যমিকের বার্ষিক পরীক্ষা, অ্যাসাইনমেন্টে মূল্যায়ন

ব্লগার নিলয় হত্যার দুই মাস আগেই ভারতীয় পত্রিকা জানলো কিভাবে !

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৮ আগস্ট, ২০১৫
  • ১৫ দেখা হয়েছে

শাহবাগ গণজাগরণ মঞ্চের ব্লগার নীলাদ্র চ্যাটার্জি ওরফে ‌’নিলয় নীল’ তার বাসায় খুন হয়েছেন আজ ৭ আগস্ট শুক্রবার দুপুরে। কিন্তু ভারতীয় একটি চরম ইসলামবিদ্বেষী অনলাইন পত্রিকায় ‘নীলয়’-এর মৃত্যু নিয়ে ঘটনার প্রায় তিন মাস আগে একটি নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে! অনলাইন অ্যাকটিভিস্টদের অনুসন্ধানে বের হয়ে আসা ইংরেজি ভাষার ওই নিবন্ধ নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

0’ডেইলি ও ডট ইন’ নামের ভারতীয় অনলাইন পত্রিকাটিতে গত ১৪ মে ২০১৫ তারিখে প্রকাশিত নিবন্ধটির শিরোনাম হচ্ছে, “Niloy, Avijit, Ananta. Is Bangladesh becoming Pakistan?”। ওয়েবসাইটে নিবন্ধের শুরুতেই এটির প্রকাশের তারিখ স্পষ্ট উল্লেখ করা আছে ’14-05-2015’। লেখকের জায়গায় নাম রয়েছে KAMLESH SINGH নামের একজনের।

নিবন্ধের শিরোনামে অন্য দুইজন খুন হওয়া হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্লগারের (অভিজিত এবং অনন্ত) নামের সাথে ‘নীলয়’-এর নাম উল্লেখ করে নিশ্চিতভাবে তার নিহত হওয়ার বিষয়টিকে বুঝানো হয়েছে।

প্রশ্ন হচ্ছে, ৭ আগস্ট খুন হওয়া নীলয়ের হত্যার বিষয়টি তিন মাস আগে (১৪ মে) প্রকাশিত নিবন্ধে থাকে কিভাবে?

লক্ষ্যণীয় আরেকটি ব্যাপার হচ্ছে, শিরোনামে নীলয়ের নাম থাকলেও পুরো নিবন্ধে আর কোথাও তার হত্যার বিবরণ নিয়ে কোন কথা নেই। অথচ শিরোনামে উল্লিখিত অন্য দুই হিন্দু ব্লগারসহ একই রকম ঘটনায় বাংলাদেশে খুন হওয়া অন্য মুসলিম ব্লগারদের হত্যার বিবরণও রয়েছে।

বিষয়টির ব্যাখ্যা হতে পারে দুই রকম। এক. ভারতীয় ওয়েবসাইটটি হিন্দু ব্লগারদের হত্যার সাথে জড়িত কোনো পক্ষের মাধ্যমে পরিচালিত হয় এবং নীলয়ের খুন হওয়ার বিষয়টি ঘটনার ৩ মাস আগে থেকে তারা জানতো!

দুই. আবার এমনও হতে পারে যে, নীলয়ের হত্যার খবর পেয়ে আজ ৭ আগস্টই ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষ নিবন্ধটির শিরোনামে ‘নীলয়’-এর নাম যোগ করে দিয়েছে।

কিন্তু তাতেও আবার কিছু প্রশ্ন জাগে। কোন ব্যাখ্যা/কৈফিয়ত ছাড়া একটি পুরোনো নিবন্ধে এমন সংযোজন-বিয়োজন করা যায় কিনা? নতুন করে শিরোনাম পরিবর্তন করা হলে তা ‘আপটেড’ আকারে ডেটলাইনে সর্বশেষ তারিখ দেখানোর কথা। কিন্তু দেখাচ্ছে না কেন? যদি একটি নিবন্ধের শিরোনাম এডিট করা হয় তাহলে ভেতরে ঘটনার বিবরণ নেই কেন? অথচ ঘটনার সাথে সাথে বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন পত্রিকায় বিস্তারিত বিবরণ প্রকাশিত হয়েছে।

এসব কোনো প্রশ্নের উত্তর ওয়েবসাইটটির কোথাও খুঁজে না পাওয়ায় অনেকে প্রথম আশংকাটিকেই প্রধান্য দিচ্ছেন।

এদিকে, বিষয়টি ধরা পড়ার পর অনলাইনে দ্রুত নিবন্ধটি ছড়িয়ে পড়ছে। Mohammad Munshi নামে একজন তার ফেসবুকে নিবন্ধটি শেয়ার করে তার সন্দেহের কথা তুলে ধরে লিখেছেন–

‍”So how is it possible that an Indian opinion piece written in May in the ‘Daily O’ mentions the name of Niloy in the title but nowhere is an explanation provided in the main text for the reference and this blogger is then slaughtered brutally today just after Jumma Namaz? (Photo 1)

Except for the murderer of Rajib Haider none of the other blogger killers have been apprehended. Even in the case of Rajib Haider the mastermind of the attack Rezwanul Azad Rana is absconding and his identity still remains a mystery although it is claimed that he is a member of the Chattra Shibir. I am beginning to suspect that while the foot soldiers may be brainwashed Islamic types the real masterminds of these killings is actually the RSS. The reason I say this is because looking at some of the websites and Facebook pages they hate these secular former Hindus more than the ‘Islamists’. (Photo 3)

Is it just a coincidence but the killing of Niloy occurs on the same day that a Hindutva outfit is holding a seminar at Ramna park. (Photo 2) In other words the murder is just a distraction.

I am suggesting here that these blogger murders are actually false flag operations.” টুডে ডেস্ক

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com