1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

মহেশখালী ধলঘাটার বাচ্চু চেয়ারম্যান বিপদাপন্ন মানুষের কাছে যাননি : সাইক্লোন সেন্টারে আশ্রয় নিতে বাধা

  • আপডেটের সময় : শুক্রবার, ৩১ জুলাই, ২০১৫
  • ৫৩ দেখা হয়েছে

মহেশখালী প্রতিনিধি :
প্রলংকরী ঘূর্ণিঝড় কোমেন উপকুলিয় এলাকায় আঘাত হানার ভয়ে যখন  সরকারের নির্দেশে উপজেলা প্রশাসনের লোকজন দিন রাত সাধারণ মানুষকে  নিরাপদ আশ্রয়য়ে নিতে মহা ব্যস্ত । টিক তেমনী সময়ে  প্রায় ৫দিন পূর্ব থেকে মুশলদারে বৃষ্টি হলেও  পানি থেকে রক্ষ পেতে দরিদ্র মানুষে সাধ্যমত প্রচেষ্টা।
২৯ জুলাই সামুদ্রিক সিগনেল বেড়ে গেলে উপকুলিয় দ্বীপ মহেশখালীর নিন্ম অঞ্চল সোনাদিয়া, ধলঘাট, মাতারবাড়ী , ঘটিভাঙগা ও বিভিন্ন ইউনিয়নের লোকজনকে  এলাকার নিরাপদ আশ্রয়গ্রহন করতে  সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়াম্যান মেম্বারাগণ বহুলভাবে প্রচার করে। গভীর রাতে আশ্রয়ণ কেন্দ্রে সরিয়ে নিয়।
উপজেলার সবচেয়ে প্লাবিত ইউনিয়ন ধলঘাটার চেয়ারম্যান আহচান উল্লাহ বাচ্চু  নিয়মিত ভাবে কক্সবাজার শহরে অবস্থান করে। বুধবার পর্যন্ত চকরিয়ায় অবস্থান করে ধলঘাটায় পৌছেনি। প্রশাসন ও বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের লোকজন চেয়ারম্যান বাচ্চুকে ফোন করে তার অবস্থান জানতে চাইলে প্রথমে আছি কোথায় আছেন বলে চকরিয়ায় বলে উত্তর দেন।
তার বাড়ীর পার্শ্বে নতুন সাইক্লোন সেন্টারের আশ্রয় গ্রহনকরতে এলাকার লোকজন আসলে তাদেরকে রুমে ডুকতে মোবাইল ফোনে বাধাঁ প্রদান করে। পরে এ বিষটি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অবহিত করলে তালা ভেঙ্গে প্রবেশ করার নির্দেশ দেন। পাশ্ববর্তী উপজেলা চকরিয়ায়  অবস্থান করা সত্তে ও  কেন তিনি বিপদাপন্ন মানুষের কাছে ছুটে যাননি সচেতন মহলের।
এলাকার আমান উল্লাহ মেম্বার ও তথ্য সেবা কেন্দ্রের গিয়াসুদ্দিন নামক এক যুবক ধলঘাট ইউনিয়নের লোকজনকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরে যেতে সহায়তা করেন বলে জানাগেছে। তারা আপ্রন চেষ্টা করে ।
এব্যাপারে  চেয়ারম্যান আহসান উল্লাহ বাচ্চুর কাজে জানতে চাইলে গতকাল বিকাল ৪টায় পর্যন্ত চকরিয়ায় অবস্থান করছিলেন।   সাইক্লোন সেন্টারে উঠতে না দেওয়ার বিষয়টি জানতে চাওয়া মাত্র অশ্লিল ভাষায় গালিগালাজ করেন। মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও চেয়াম্যান ধলঘাটায় উপস্থিত না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com