কক্সবাজারলীড

মানবপাচার প্রতিরোধে সরকারের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট এনজিও এবং সুধীসমাজকে এগিয়ে আসতে হবে-ডিসি মো: কামাল হোসেন

88views

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজারে মানবপাচার, বাল্যবিবাহ ও লিঙ্গ ভিত্তিক সহিংসতার শিকার নারী পুরুষদের জেলা রেফারেল সার্ভিস ও সার্ভাইভাল সার্ভিস গাইড লাইন বিষয়ক এক পর্যালোচনা কর্মশালা অনষ্ঠিত হয়েছে। ৩ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসন পরিচালিত বিশেষায়িত স্কুল অরুণোদয় এর সম্মেলন কক্ষে ইউএসএইড’র সহায়তায় ও উইনরক ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক বাস্তবায়িত বাংলাদেশ কাউন্টার ট্রাফিকিং-ইন-পার্সনস (বিসি/টিআইপি) প্রোগ্রাম কর্তৃক এ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক কামাল হোসেন। তিনি আলোচনায় বলেন, মানবপাচার বিষয়টি অত্যান্ত ঝুঁকিপূর্ন বর্তমানে দালালচক্রসহ পাচারকারীরা বিভিন্ন কৌশলে মিথ্যা প্রলোভনে রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠিকে বিভিন্ন দেশে পাচার করছে। তিনি পাচারের ধরন চিহ্নিত করে দালাল চক্র ও পাচারকারীদের রক্ষায় সবাইকে কাজ করার গুরুত্বারোপ করেন। বর্তমানে এসব পাচার অনেকটা কমে গেছে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন-বর্তমানে সরকারের পাশাপাশি অনেক এনজিও, সংস্থা এগিয়ে এসেছে মানবপাচার প্রতিরোধ, বাল্য বিবাহসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজে। এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা রাখছে ইউএসএইড ও উইনরক ইন্টারন্যাশনাল। তাদের সাথে উপজেলা ও ইউনিয়ন কমিটি সমন্বয় করে জনগণকে সচেতনতা বৃদ্ধি করে একসাথে কাজ করতে হবে।
কর্মশালায় বিভিন্ন বক্তারা বলেন, শীত মৌসুমে মানবপাচার আবার বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেক ভিকটিমকে মালেশিয়া বা থাইল্যান্ড বলে কক্সবাজারের বিভিন্ন উপকূলে নিয়ে প্রতারিত করে সমুদ্র উপকূলে ফেলে দিচ্ছে। তাই এখনই জোরালোভাবে এই মানবপাচার, বাল্যবিবাহ এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া সব নাগরিকের মৌলিক দায়িত্ব।
তবে দ্রুত মানব পাচার নিয়ে কাজ করছে এই সব সংস্থা গুলো জনপ্রতিনিধি, পুলিশ প্রশাসন, স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধিসহ সমন্বয়ে কাজ করলে পাচার প্রতিরোধে সহায়ক ভূমিকা পালন করা সম্ভব বলে মনে করছেন আলোচকরা। এবং মানবপাচার প্রতিরোধ আইন বাস্তবায়ন সম্যক ধারনা বিষয়ে জনগনকে সচেতনতা বৃদ্ধিরও আলোকপাত করা হয়।
কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন-কক্সবাজার আরআরআরসি অফিসের ডেপুটি সেক্রেটারী আতিকুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো: শাহাজাহান আলী, কক্সবাজার কো-চেয়ার সিসিএনএফ এর নির্বাহী পরিচালক আবু মোর্শেদ চৌধুরী খোকা, লিসবেথ জোনেভেল্ড, চীফ অব পার্টি, বিসি/টিআইপি, বাংলাদেশ, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এইচএম মাহফুজুর রহমান ও উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: নিকারুজ্জামান চৌধুরী রবিন। সভার উদ্দেশ্যাবলী নিয়ে আলোকপাত করেন উক্ত প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম ডাইক্টের এইচ. এম. নজরুল ইসলাম। তিনি কক্সবাজারের প্রেক্ষিত এবং রেফারেল ডাইরেক্টরীর ও সার্ভাইভাল সার্ভিস গাইড লাইন এর গুরুত্বের উপর আলোচনা করেন।
উপস্থিত অতিথিবৃন্দরা উপস্থাপিত রেফারেল ডাইরেক্টরীর ও সার্ভাইভাল সার্ভিস গাইড লাইন এর গুরুত্বের উপর গুরুত্বপূর্ন মতামত ও সংযোজন করেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন-আরআরআরসি অফিসের কর্মকর্তা, ডিসি ও এসপি অফিসের প্রতিনিধি, কক্সবাজার জেলার অন্যান্য সরকারী ও বেসরকারী সংস্থার প্রতিনিধি জাতিসংঘের বিভিন্ন এজেন্সি’র প্রতিনিধি, গণমাধ্যম কর্মী, আইনজীবী, বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধিসহ অন্যান্য অতিথিবৃন্দ।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইউনরক ইন্টারন্যাশনাল এর বিসি/টিআইপি প্রোগ্রামের প্রোগ্রাম ডাইরেক্টর এইচ. এম.নজরুল ইসলাম। সভার সমাপনী বক্তব্য রাখেন-চীফ অব পার্টি লিসবেথ জোনেভেল্ড।

Leave a Response