1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

রঙ্গিখালী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ড.গাজী কামরুল ইসলামকে খোঁজতে তার ছেলে গাজী মিজানুর রহমান এখন টেকনাফে : পুরস্কার ঘোষনা

  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ৫০ দেখা হয়েছে

কক্সবাজার আলো :
কক্সবাজার জেলার টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের রঙ্গিখালী দারুল উলুম ফাজিল মাদরাসা ও খতিজাতুল কোবরা মহিলা দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ড. শাহ ড.গাজী কামরুল ইসলাম (জঙ্গলী ফকির) কে খোঁজতে তার ছেলে গাজী মিজানুর রহমান এখন টেকনাফে রয়েছে। ১১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার তিনি বরিশাল থেকে টেকনাফে পৌঁছলে রঙ্গিখালীর আপামার জনতা ও মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষক তাকে এক নজর দেখে জঙ্গলী ফকিরের অন্তর জ্বালা মিঠানোর স্বাদ ভোগ করতে ঢল নেমেছেন। মিজানুর রহমান পিতার প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসার ছাত্র-শিক্ষক ও পরিচালনা পরিষদ, আপামর জনতার ঢল দেখে পিতাকে কাছে পাবার স্বাদ পাচ্ছেন বলে জানান। সে রঙ্গিখালী দারুল উলুম মাদ্রাসা, খতিজাতুল কোবরা মহিলা দাখিল মাদ্রাসা এবং লেঙ্গুরবিল মুহিচ্ছুন্নাহ বালিকা দাখিল মাদ্রাসা পরিদর্শন করেন। এদিকে টেকনাফবাসী জানতে চাই, তিনি এখন কোথায় আছেন, কেমন আছেন তার হাতের গড়া এই প্রতিষ্ঠানটি তাকে এখন হাতছানি দিয়ে ডাকছে।
তিনি ১৯৭৭ সনের রঙ্গিখালীর গাজী পাহাড়ে আশ্রয় নিয়ে ধ্যান সাধনায় মগ্ন থাকতেন। গাজী পাহাড় এলাকায় ছিল হাতি, বাঘ, ভাল্লুক ও হিংস্র জন্তুর অভয়ারণ্য এবং তাদের সাথে বসবাস করত বলে তার ভক্তরা জানান। সেখানে বসে তিনি স্বপ্ন দেখেছিলেন, এ অজপাড়া গাঁ-গ্রামকে রঙ্গিখালীকে
ইসলামী দ্বীনি শিক্ষা দিয়ে এলাকাকে আলোকিত করতে সদা সর্বদা চিন্তা করতেন। তাই তিনি তার স্বপ্ন বাস্তবায়ন কল্পে প্রথমে একটি হেফজখানা ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠাতা করে অশিক্ষিত জনগোষ্ঠীকে শিক্ষিত আলো দেখায়। মাত্র ৩৫ জন ছাত্রছাত্রী নিয়ে রঙ্গিখালী হেফজখানা প্রতিষ্ঠাতা করে কোরআনী শিক্ষার যাত্রা শুরু করে।
পরে তার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এলাকার ধর্মপ্রাণ এবং শিক্ষানুরাগী সহযোগিতার মাধ্যামে ইবতেদায়ী মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠাতা করেন। এ মাদ্রাসা হাটি হাটি পা পা করে একটি পুনাঙ্গ মাদ্রাসায় পরিণত করেন। রাবেতা আল আলেমে ইসলাম একটি আন্তজার্তিক সংস্থা ২৪ লক্ষ টাকার অর্থায়নে দ্বিতল ভবন নির্মাণ করেন। এ মাদ্রাসার নামকরণ করেন রঙ্গিখালী দারুল উলুম সিনিয়র মাদ্রাসা । ড.গাজী শাহ কামরুল ইসলাম (জঙ্গলী ফকির) এর দৃষ্টিভঙ্গি ছিল এ মাদ্রাসা হবে বাংলাদেশের একটি ব্যতিক্রমধর্মী প্রতিষ্ঠান । এ প্রতিষ্ঠান থেকে এসব ছাত্রছাত্রী বের হবে তারা হবেন, সৎ, যোগ্য ও সত্যিকার মানব সম্পদ এবং মানুষ গড়ার কারিগর। মাদ্রাসা পরিচালনার জন্য একটি বোর্ড অব ট্রাস্ট নামক মজবুত কমিটি গঠন করেন। তার এ চিন্তাধারা ও কর্মদক্ষতা বাস্তবে প্রমানিত হয়েছে। এছাড়া মাদ্রাসার পাশাপাশি হতদরিদ্র ছাত্রদের লেখাপড়ার করার উদ্দেশ্যে আবাসিক ব্যবস্থা গড়ে তুলেন।
এটি তার জন্য কালের স্বাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়েছে। তিনি ভক্তদের সামনে প্রায় সময় একটি হাদিসে উক্তি দিয়ে বলতেন নর-নারীর জন্য শিক্ষার আবশ্যাক। তাই সেই হিসেবে প্রত্যেক নরের পাশাপাশি নারী শিক্ষাকে প্রধান্য দিয়ে খতিজাতুল কোবরা দাখিল মাদ্রাসা ও আবাসিক ছাত্রী নিবাস প্রতিষ্ঠা করে এতদঞ্চলের নারীর শিক্ষার হার প্রসারিত করেছেন। এটি তার যুগান্তকারী এক প্রদক্ষেপ। এছাড়া তিনি মাদ্রাসা শিক্ষার পাশাপাশি প্রতিবছরের শুরুতে ইসলামী সম্মেলনের আয়োজন করতেন। এতে দেশের খ্যাতনামা আলেম-উলেমার পদচারন হত। বর্তমানে আজ অবস্থার বিলুপ্তির পথে। এখানে তার ভক্তরা এসে তার কাছ থেকে জ্ঞানের আলো আহরণ করত। অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় যে, মাদ্রাসায় অভ্যন্তরীণ কোন্দল এবং তার চরিত্রিক কালিমা লেপনের আবাস লক্ষ্য করে কাউকে না বলিয়ে মাদ্রাসা থেকে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি দেয়। পরে এলাকাবাসী তার শুন্যতা এবং প্রয়োজনীতা উপলদ্ধি করে তিনি একবার এই প্রতিষ্ঠানে এসেছিলেন। পরে খতিাজাতুল কোবরা দাখিল মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করে ফের আত্নগোপন হয়ে যায়। তাই তিনি গত এক যুগ ধরে এ মাদ্রাসা থেকে তিনি নিখোঁজ হন। তাকে ফিরে আনতে এবং সন্ধান পেতে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটি ও শিক্ষকেরা এব্যাপারে কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেননি। এলাকাবাসী এ ব্যাপারে উদ্ধিগ্ন। তার শুন্যতায় এ প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত ও জর্জরিত। তাই তাকে ফিরে পেতে তার ভক্তরা অধির আগ্রহের মধ্যে কালিতিপাত করছে। Sayed Hossain (Journalist)
টেকনাফ রঙ্গিখালী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা ড.গাজী কামরুল ইসলাম গত ১ যুগ ধরে নিখোঁজ, তার সন্ধান দিতে পারলে নগদ ৫০ হাজার টাকা পুরস্কার ঘোষনা করেছে কক্সবাজার জেলা থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তার সম্পাদক ও প্রকাশক, টেকনাফ লেঙ্গুরবিল মুহিউচ্ছুন্নাহ বালিকা দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আলহাজ্ব মাও: ছৈয়দ হোসাইন।
সন্ধানপ্রার্থী
আলহাজ্ব মাও: ছৈয়দ হোছাইন।
দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তার সম্পাদক ও প্রকাশক

টেকনাফ লেগুরবিল মুহিউচ্ছুন্নাহ বালিকা দাখিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ।
মোবাইল নং- ০১৮১৭-০০৬৭৪৬।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com