1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

রামুতে ডাকাতের গুলিতে গৃহকর্তা নিহত, জামাতা আহত

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ১১ দেখা হয়েছে

সোয়েব সাঈদ, রামু :
কক্সবাজারের রামুতে বসত বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন গৃহকর্তা নুর আহমদ। গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছেন গৃহকর্তার জামাতা ইছহাক (২৮)।
বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১২ টায় রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মালাপাড়া অরইকুলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। নিহত নুর আহমদ (৫৫) নজির আহমদের ছেলে।
সহকারি পুলিশ সুপার (উখিয়া সার্কেল) আব্দুল মালেক, রামু থানার ওসি মো. আবদুল মজিদ আজ বৃহষ্পতিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ নেতা কামাল সামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স জানিয়েছেন, সম্প্রতি ওই এলাকায় ডাকাত ও অপহরণকারি চক্রের তৎপরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় লোকজন আতংকে ছিলো। এ কারনে বুধবার রাতে নুর আহমদ গরু-ছাগল ও ফসলী জমি পাহারা দেয়ার উদ্দেশ্যে ঘরের সামনে পাহারারত ছিলেন। রাত সাড়ে ১২ টায় একদল অজ্ঞাত ব্যক্তি এসে নুর আহমদের বাড়িতে হানা দেয়। এসময় টর্চের আলো দেখে নুর আহমদ চিৎকার করতে চাইলে ডাকাতরা তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এতে নুর আহমদ এবং তার জামাতা ইছহাক গুলিবিদ্ধ হন। এসময় ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে বাড়ির অন্যান্য সদস্যদের জিম্মি করে লুটপাট চালিয়ে বিভিন্ন মালামাল নিয়ে সটকে পড়ে। ঘটনার পর স্থানীয় জনতা গিয়ে গুলিবিদ্ধ নুর আহমদ ও ইছহাককে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠায়। তবে হাসপাতালে নেয়ার পথে প্রাণ হারান গৃহকর্তা নুর আহমদ। এ ঘটনায় অপর গুলিবিদ্ধ ইছহাক (২৮) বর্তমানে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। নিহত নুর আহমদ ৩ ছেলে ৩ মেয়ের জনক।
রামু থানার ওসি আবদুল মজিদ ডাকাতের গুলিতে হতাহতের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
সাম্প্রতিক সময়ে রামু উপজেলায় ডাকাতি ও চুরির ঘটনা বেড়ে গেছে। এরআগে ১৯ সেপ্টেম্বর উপজেলার ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের পশ্চিম মেরংলোয়া গ্রামে মৃত বাদশা আলমের ছেলে জহির উদ্দিনের বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ১৬ সেপ্টেম্বর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের মন্ডলপাড়া স্বপ্নপুরী কমিউনিটি সেন্টারের উত্তর পাশে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আহমদ হোসেন এর বাড়িতে চোরের দল গ্রিল ভেঙ্গে মোটর সাইকেল চুরি করে। মোটর সাইকেলটির মালিক ব্র্যাক বাংক ঈদগাও শাখার ইনচার্জ মো. জামাল হোসেন জানিয়েছেন, বিভিন্নস্থানে খোঁজ নিয়েও মোটর সাইকেলটির সন্ধান মেলেনি। এ নিয়ে থানায় তাৎক্ষনিক অবহিত করা হয় এবং পরে সাধারণ ডায়েরী করা হলেও গাড়িটি উদ্ধারে পুলিশের কোন সহযোগিতা পাওয়া যায়নি।
১৯ সেপ্টেম্বর রাতে রামু ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের পূর্ব মেরংলোয়া গ্রামে মোহাম্মদ শাকিলের বাড়িতে সংঘবদ্ধ চোর দরজা ভেঙ্গে এবং গ্রিলের তালা ভেঙ্গে মোটর সাইকেল চুরি করে। এরআগেও শাকিলের আরো একটি মোটর সাইকেল চুরি হয়েছিলো বলে জানা গেছে। একের পর এক ডাকাতি আর মোটর সাইকেল চুরির ঘটনায় লোকজন আতংকে থাকলেও এসব অপরাধে জড়িতরা ধরছোয়ার বাইরে রয়ে যাচ্ছে।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com