ইসলামকক্সবাজারলীড

রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ডের অভিজাত ইফতার

38views

নিজস্ব প্রতিবেদক
সভ্যতার বিবর্তনে মানুষের রুচিতে এসেছে আমূল পরিবর্তন। সকলের চোখ এখন নিত্য নতুনত্বে। রুচিশীল মানুষের চাহিদার কথা ভেবে সব কিছুতে ভিন্নতা আনা হচ্ছে। তাই ধর্মপ্রাণ রোজাদারদের কথা মাথায় রেখে পর্যটন শহরের রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড মনোরম পরিবেশে অভিজাত ইফতার আয়োজন করেছে। বৃহস্পতিবার বিকালে রেডিয়েন্টের ইফতার আয়োজনে গিয়ে দেখা যায়, নির্মল ও স্নিগ্ধ পরিবেশ। সর্বত্র পরিষ্কার ও পরিছন্নতায় ঘেরা। দুপুর থেকে চলে লোভনীয় খাবারগুলো পরিপাটি করে সাজানোর। প্রতিদিন এখানে পর্যটকদের পাশাপাশি স্থানীয়দের ভীড় জমে। ক্রেতাদের চাহিদা অনুযায়ী দেয়া হয় কাঙ্খিত সেবা। এবার ইফতার মেন্যুতে এখানে প্রায় ২০ রকমের আইটেম রয়েছে। তার মধ্যে ছোলা, পেঁয়াজু, বেগুনী, আলুর চপ, ডিম চপ, খাসীর চপ, তান্দুরি চিকেন, ভেজিটেবল পাকুরা, জালি টিকা কাবাব, চিংড়ি পাকুরা, মিক্সড শরবত, ভূসির শরবত, খেজুর, আপেল, কলা, শাহী জিলাপী, সাসলিক কাবাব, মাল্টা, মুড়ি, শাহী, ফিরনী অন্যতম। রয়েছে ৬০, ১৫০, ২৯০ টাকার মূল্যে স্পেশাল হালিম। তাছাড়া রয়েছে ১৯০ টাকার একটি আকর্ষণীয় ইফতার প্যাকেজ। রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড এর রেস্টুরেন্টে ইফতার পার্টির জন্য ১২০ থেকে ৩০০ জন মানুষের সুবিশাল শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত মনোমুগ্ধকর স্পেস রয়েছে।
জানা যায়, প্রতিষ্ঠার পর থেকে পর্যটন শিল্প বিকাশ ও উন্নয়নে বিশেষ অবদান রাখছে রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড। দেশ ও জাতির সেবা করাই তাদের মূল লক্ষ্য। যার জন্য রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড পর্যটক ও স্থানীয়দের হৃদয়ের মণিকোঠায় স্থান পেয়েছে অতি দ্রæত। পর্যটক ও স্থানীয়দের এই আত্মবিশ্বাস ধরে রাখতে কর্তৃপক্ষ বদ্ধপরিকর।
এখানে ইফতার করতে গোয়েন্দা বাহিনীর এক কর্মকর্তা জানান, এখানকার ইফতার ভেজালমুক্ত। স্বাদে অতুলনীয়। দামও নাগালের মধ্যে। যার জন্য প্রতিদিন তিনি এখানে ছুটে আসেন।
তার মতো স্থানীয় এনজিও কর্মী সাকিব, পর্যটক আশেক ও ব্যাংকার ইকবাল হোসেন জানান, এখানকার ইফতার এর দাম কম। পাশাপাশি মানও খুবই ভাল।
রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড এর রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিকুর রহমান চৌধুরী জানান, পর্যটকদের সাথে আমাদের সম্প্রীতির মেলবন্ধন তৈরি হয়েছে অনেক আগে থেকেই। এখানকার এক ঝাঁক নবীন-প্রবীণ চৌকষ কর্মীদের নিরলস পরিশ্রমের জন্য তা সম্ভব হয়েছে। পর্যটকদের পাশাপাশি স্থানীয়দের প্রিয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ড। কারণ আমরা ব্যবসায় চেয়ে মানুষের আস্থা অর্জনকে মূল্য দিয়েছি বেশি।
জিএম মোহাম্মদ নিজামুল ইসলাম জানান, প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ইফতার আয়োজনে আমরা স্বকীয়তা বজায় রেখেছি। মানুষের স্বাস্থ্য ও রুচির কথা মাথায় রেখে এখানকার সব খাবার তৈরি করা হয়। এসব খাবারে পাওয়া যাবে দেশীয় ও পাশ্চাত্যের ছোঁয়া। দামটাও সাধ্যের মধ্যে রাখা হয়েছে।

Leave a Response