1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

শিশুদের মুখে হাসি ফোটালেন মুশফিক

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট, ২০১৫
  • ১৪ দেখা হয়েছে

কক্সবাজার আলো ডেস্ক :
শিশুদের হাতে খেলনা পৌঁছে দিলেন জাতীয় দলের টেস্ট অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। সাবেক ক্যাডেট ফোরামের উদ্যোগে আয়োজিত ‘টয়েস আর ইয়োরস’ ইভেন্টের কার্যক্রমের অংশ হিসেবে বৃহস্পতিবার দুপুরে ঢাকা শিশু হাসপাতালের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে গিয়ে শিশুদের মাঝে খেলনা উপহার দিয়ে তাদের মুখে হাসি ফোটান এই ক্রিকেটার। এ সময় তিনি শিশু ও তাদের অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলেন। শিশুদের মুখে হাসি দেখে বেশ উচ্ছ্বসিত মুশফিক বলেন, ‘শুধু খেলোয়াড় হিসেবে নয়, যার যার নিজ উদ্যোগ থেকে শিশুদের জন্য কিছু করা উচিত। এমন একটি ইভেন্টের সঙ্গে আমি সম্পৃক্ত হতে পেরে আনন্দিত। সাবেক ক্যাডেটদের ধন্যবাদ জানাই এমন একটা মহৎ উদ্যোগ নেওয়ার জন্য। আজকের শিশুরাই আগামীতে বড় পর্যায়ে যাবে। ছোট বেলাতেই তাদের উৎসাহ দেওয়া উচিত। এখানে এমন শিশুও আছে যারা কিনা জীবনে খেলনা দেখেই নি, পাওয়া তো দূরের কথা। ইভেন্টটির সঙ্গে আমাদের বাকী ক্রিকেটারাও আছে। আমি চেষ্টা করবো এমন উদ্যোগের সঙ্গে ভবিষ্যতেও থাকার।’ এ সময় নিজের একটি উদ্যোগের কথাও জানান মুশফিক, ‘আমারও একটা পরিকল্পনা আছে। সেটা হলো শিশু-তরুণ-বৃদ্ধদের নিয়ে একটি ফাউন্ডেশন করার। সময় হলে আপনারা জানতে পারবেন। এভাবে যদি সবাই এগিয়ে আসে আমাদের দেশটা অনেক সুন্দর হবে।’ গত  মাসে ‘টয়েস আর ইয়োরস’ ইভেন্টের সঙ্গে সম্পৃক্ততা প্রকাশ করে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে এর প্রচারণাতেও অংশ নেন তারা। ইভেন্টটির আয়োজন করে সাবেক-ক্যাডেট ফোরাম। সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে হাসি ফোটাতে ব্যাতিক্রমী এ ইভেন্টের আয়োজন করেছে তারা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারণা চালিয়ে সারাদেশ থেকে খেলনা সংগ্রহ করছে ফোরামটি। সেই সঙ্গে এসব খেলনা শিশুদের কাছে পৌঁছেও দিচ্ছেন তারা। ইভেন্টটি প্রসঙ্গে সাবেক ক্যাডেট ফিদা হক বাংলানিউজকে জানান, ‘চার মাস ধরে আমরা এই ক্যাম্পেইনটি চালাচ্ছি। আমাদের আড্ডার ফাঁকে হঠাৎ এমন উদ্যোগের পরিকল্পনা মাথায় আসে। এর আগে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের নিয়ে যে সমস্ত স্কুল-সংগঠন কাজ করে, তাদের মাঝে খেলনা বিতরণ করেছি। দেশের ১২টি ক্যাডেট কলেজ থেকে পাস করা শিক্ষার্থীরা এ ইভেন্টের সঙ্গে জড়িত। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম- ফেসবুকের মাধ্যমে আমরা ক্যাম্পেইন পরিচালনা করি।’  এর আগে ঢাকার তিনটি স্কুলে শিশুদের মাঝে খেলনা বিতরণ করেন ফোরামের সদস্যরা।  মিরপুরের ফ্রি স্কুল, আদাবরে মহিলাদের ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশন (এইচডিডব্লিউসি) ও বিজয় সরণির দেয়াল কোঠায় গিয়ে খেলনা পৌঁছে দেন সাবেক ক্যাডেটরা।  ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগেও এর আগে খেলনা বিতরণ করেছেন তারা।  এছাড়া ঢাকার বাইরের কয়েকটি জেলাতেও সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের খেলনা উপহার দিয়েছেন সাবেক ক্যাডেটরা।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com