1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :

শেষ মুহুর্তে ঈদগাঁও’র কোরবানীর পশুর হাট জমছে

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৫
  • ২২ দেখা হয়েছে

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও :
মুসলিম মিল্লাতের ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হওয়ার সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা’কে কেন্দ্র করে শেষ মুহুর্তে ঈদগাঁওয়ের প্রধান পশুর হাট বাজারে গরু-মহিষের বেচাকেনা জমছে। তবে দাম চড়া, এ নিয়ে বিপাকে পড়েছে দূর-দূরান্তের ক্রেতারা। তবে উপচে পড়া ভিড় লক্ষনীয়। কেউ যাচাই-বাছাই করে কোরবানীর কাঙ্খিত পশু কিনছে, আবার অন্যকেউ কোরবানীর আগের দিন কেনার অপেক্ষায় প্রহর গুনছে। কোরবানের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই দেশের বিভিন্ন স্থানে চাকুরী কিংবা ব্যবসায় থাকা স্থানীয় লোকজন গ্রামের বাড়িতেই এসে ঈদ করার পাশাপাশি কোরবানীর গরু ক্রয়ে ছুটে যাচ্ছে চাহিদা অনুযায়ী তাদের কাঙ্খিত পশু কেনার জন্য। বিগত বছরের চেয়ে এবারে গরুর দাম একটু বেশি। তাই এসব দামকে তোয়াক্কা করছে না ক্রেতাগণ। কিন্তু এবছর গরু বাজারে দেশীয় গরুর ছড়াছড়ি। এমনকি ঈদগাঁওয়ের ঐতিহ্যবাহী পশু বাজার সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, বৃহত্তর ঈদগাঁওর প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের লোকজনের পালিত দেশীয় গরুর প্রচুর সমাহার। তাই ক্রেতারা ইচ্ছেমত পছন্দনীয় গরু কিনতে ভুল করছে না। তবে ঈদগাঁওয়ের প্রধান বাজারের পাশাপাশি পোকখালী, কালিরছড়া, নতুন মহাল, ইসলামপুরসহ বিভিন্ন পশুর হাটবাজারেও প্রচুর পরিমাণ গরু-মহিষ বিকিকিনি হচ্ছে বলে একাধিক সূত্রে প্রকাশ। এদিকে বেশ কয়েকজন ক্রেতার সাথে কথা হলে তারা হাস্যোজ্জ্বল কন্ঠে জানান, বিগত বছরের ন্যায় এবছর একটু গরুর দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। তবুও কোরবানীর পশু কিনে ফেলব। আবার বেশ কয়েকজন গরু বিক্রেতার সাথে কথা হলে তারা কোরবানীর পশুর ক্রয়ের ক্ষেত্রে জাল নোট আতঙ্কে রয়েছে। কোরবানী পশু কিনতে আসা গ্রামাঞ্চলের কয়েক ব্যক্তির সাথে এ প্রতিনিধির সাক্ষাত হলে- বড় সাইজের একটি গরু কিনে একজনের পক্ষে কোরবানি দেওয়া প্রায় অসম্ভব। আমি নিজেও ছোট গরু নিয়ে কোরবানি দেব। কারন ৪০/৪৫ হাজার টাকায় দেশি জাতের ভাল মানের গরু পাওয়া যাচ্ছে। পোকখালী-ভারুয়াখালীর কয়েক গরু বিক্রেতার সাথে কথা হলে তারা বলেন,আমাদের পালিত পশু ক্রেতারা পর্যাপ্ত পরিমাণ দাম না চাওয়ায় বিক্রি করতে পারছি না। তবে শেষ পর্যন্ত দেখা যাক, কোন একটা বিবেচনা পূর্বক গরু বিক্রি করে দেবে বলে জানান। চৌফলদন্ডী থেকে কোরবানীর পশু কিনতে দাদার সাথে আসা ছোট্ট শিশু আইরিনের সাথে কথা হলে সে আদো আদো কন্ঠে- এবার প্রথমবার কোরবানীর পশুর হাটে দাদুর সাথে বাড়ীর জন্য কোরবানীর পশু কিনতে আসছে, তবে বড় দেখে গরু নেবে বলে জানায়। তার পাশাপাশি গেল শনিবার এ বহুল আলেচিত ঈদগাঁও বাজারে  বিভিন্ন সাইজের প্রচুর গরু তুলেছে ব্যবসায়ীরা। এমনকি বৃহত্তর ঈদগাঁও ছাড়াও দূর-দূরান্তের অনেক লোকজন কোরবানীর পশু এ বাজার থেকে কিনে গাড়ীতে করে দেশি জাতের গরু নিয়ে যাচ্ছে। আরো দেখা যায়, এ বৃহত্তর পশুর বাজারে আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে পুলিশের পাশাপাশি আনসার বাহিনীর সদস্যরাও টহল কার্যক্রম জোরদার রেখেছে।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com