কক্সবাজারপর্যটনলীড

সেন্টমার্টিনে বেড়াতে যাওয়া পর্যটক আটকা

210views

কক্সবাজার আলো :
পূর্ব মধ্য বঙ্গোপসাগর ও তৎসংলগ্ন এলাকায় ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ এর কারনে কক্সবাজার সমুদ্র উপকূলে ৩নং স্থানীয় সতর্ক সংকেত থাকায় বৃহস্পতিবার সেন্টমার্টিন থেকে ফিরতে পারেনি প্রায় ৯০০ পর্যটক।
৮ নভেম্বর শুক্রবার সকালে দমদমিয়া জাহাজঘাট থেকে কোন পর্যটকবাহী জাহাজ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যায়নি। সে হিসেবে প্রবাল দ্বীপে আটকে থাকা পর্যটকেরা আজ ফিরতে পারছেনা।
দ্বীপের আবাসিক হোটেলগুলোতে তারা নিরাপদে অবস্থান করছে। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে গন্তব্যে ফিরবে আটকে পড়া পর্যটকেরা।
সেন্টমার্টিনের প্যানেল চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাবিব মেম্বার জানান, বৃহস্পতিবার বেড়াতে আসা পর্যটকদের অনেকে টেকনাফ ফিরেনি। হঠাৎ বৈরি আবহাওয়ায় প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার কারণে তারা আটকে গেছে।
তবে, স্থানীয় প্রশাসন পর্যটকদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছে। সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নিচ্ছে। সেন্টমার্টিন থেকে না ফেরা পর্যটকের সংখ্যা প্রায় ৯০০ হবে বলে জানান হাবিব মেম্বার।
সমুদ্রে ৩ নং সতর্ক সংকেত থাকায় সেন্টমার্টিনগামী কোন জাহাজ শুক্রবার না ছাড়তে নির্দেশ জারী করেন কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো: আশরাফুল আফসার।
দ্যা আটলান্টিক ক্রুজের কক্সবাজারস্থ ইনচার্জ নাসির উদ্দিন জানান, আবহাওয়ার কারনে হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়া জাহাজ চলাচলে আমরা অনেক পর্যটককে টিকেট ফিরিয়ে দিয়েছি এবং বুকিং বাতিল করেছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে জাহাজ চলাচল শুরু হবে।
সেন্টমার্টিন দ্বীপের আবাসিক হোটেল সী-প্রবালের পরিচালক আবদুল মালেক জানান, ৮-১১ নভেম্বর এই ৪ দিন তার হোটেল বুকিং ছিলো। ইতোমধ্যে অনেক পর্যটক সেন্টমার্টিন গিয়ে পৌঁছেছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে হঠাৎ সমুদ্রগামী জাহাজ চলাচল বন্ধ থাকায় তাদের ব্যবসার বড় ধরনের ক্ষতি হয়ে গেল।

Leave a Response