হোটেল রাজমনি থেকে মালয়েশিয়াগামী ১২ রোহিঙ্গা উদ্ধার, আটক ২

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজার শহরের ভোলাবাবুর পেট্টোলপাম্প এলাকায় অভিযান চালিয়ে অবৈধ পথে মালয়েশিয়া যেতে অপেক্ষমান ১২ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৭। এসময় মানবপাচারকারী চক্রের ২ সদস্যকেও আটক করেছেন অভিযানকারীরা। বৃহস্পতিবার ভোরে এ অভিযান চালানো হয়।
আটকরা হলেন, চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার পশ্চিম মিরিকেল এলাকার মৃত ওমর আলীর ছেলে মো. নুরুল ইসলাম (২১) ও উখিয়ার থাইংখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ব্লক-বি-২৬ এর বাসিন্দা মো. শফিকের ছেলে মো. জাহেদ আলম (২৭)।
র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্প ইনচার্জ মেজর মেহেদী হাসান জানান, কতিপয় মানবপাচারকারী মিয়ানমার নাগরিকদের অপহরণ এবং প্রলোভন দেখিয়ে মালয়েশিয়ায় পাচারের উদ্দেশ্যে কক্সবাজার শহরে অবস্থান করছে। এমন খবর পেয়ে শহরের ভোলাবাবুর পেট্টোলপাম্প এলাকার মোহাম্মদী লাইব্রেরীর লাগোয়া হোটেল রাজমনিতে অভিযান চালালে পালিয়ে যাওয়ার সময় ২ মানবপাচারকারীকে আটক করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে ১২ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়।
উদ্ধার রোহিঙ্গারা হলেন, মো. হাসিম উল্লাহ (১৮), মো. ইব্রাহীম (২২), মোছা. সাজিদা (১৯), মোসা. সুকুরা (১৮), মোছা. নূর বেগম (২২), মোছা. সাজিদা (২৫), মো. আলম (২১), মো. যুবায়ের (১৭), মো. কামাল হোসেন (২৫), মো. হোদয়েত উল্লাহ (২০), মো. ইসমাইল (৩৫) এবং মো. আমীর হোসেন (২৫)।
উদ্ধাররা জানান, অল্প টাকার বিনিময়ে সাগরপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার আশায় তারা কক্সবাজারে অবস্থান করছিলেন। অপরদিকে আটক পাচারকারীরা স্বীকার করেছেন দীর্ঘদিন যাবৎ সাগরপথে অবৈধভাবে তারা মানবপাচার করে আসছেন। র‌্যাব জানিয়েছে, আটককৃতদের বিরুদ্ধে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইনে মামলা করে তাদের কক্সবাজার সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত ভিকটিমদের পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে থানায় সোপর্দ করা হয়।
এদিকে হোটেল রাজমনিতে দীর্ঘদিন ধরে প্রকাশ্যে পতিতা ব্যবসা করে আসছে। কথিপয় রাজনৈতিক নেতা ও প্রশাসনের কিছু কর্তাব্যক্তিকে ম্যানেজ করে এসব ঘৃন্য অপরাধ-কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

উপদেষ্টা সম্পাদক : হাসানুর রশীদ
সম্পাদক ও প্রকাশক : মুহাম্মদ শাহজাহান

নির্বাহী সম্পাদক : ছৈয়দ আলম

যোগাযোগ : ইয়াছির ভিলা, ২য় তলা শহিদ সরণী, কক্সবাজার। মোবাইল নং : ০১৮১৯-০৩৬৪৬০

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য অধিদপ্তরে নিবন্ধনের জন্য আবেদিত

Email:coxsbazaralo@gmail.com