1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

ঈদগাঁওতে ঈদের কেনাকাটায় নারীদের দখলে মার্কেট

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ জুলাই, ২০১৫
  • ৭৩ দেখা হয়েছে

এম. আবুহেনা সাগর, ঈদগাঁও :
আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে বর্ষায় মেঘ-বৃষ্টির লুকোচুরির মধ্যেই ঈদ প্রস্তুতিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে বিশেষ করে নারী ক্রেতারা। শুধু জামা-জুতা কিনলেই কি ঈদের কেনাকাটা শেষ? তাতেই কি নারীর সাজ পূর্ণ হয়? ঈদের কেনাকাটায় নারীদের উপচেপড়া ভিড়ে জমজমাট হয়ে উঠতে শুরু করেছে কক্সবাজার সদর উপজেলার বহুল আলোচিত বাণিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারের নানা বিপণিবিতান ও শপিং মলগুলোতে। অনেকে কিনতে শুরু করেছেন তাদের পছন্দের শাড়ি, থ্রি-পিস। তাছাড়া রয়েছে দেশি-বিদেশি পোশাকের বাহার। সবকিছু মিলিয়ে নারীদের পছন্দের পণ্য ও বাহার জমিয়েছে বিপণিবিতানগুলো। প্রতিবারের মতো এবারও বাজারে ভারতীয় টিভি সিরিয়ালে পাখি ড্রেসের পরিবর্তে এবার কিরণমালা নামের পোশাক শোভা পাচ্ছে বিপণিবিতানগুলোতে। বলিউড আর ভারতীয় বাংলা সিরিয়ালের অভিনেত্রীদের নামের ট্যাগ ঝোলানো পোশাকের দিকেই নজর নারী ক্রেতাদের। তবে এবারে বৃহত্তর ঈদগাঁওর গেল বন্যার কারণে বেচাকেনায় রোজার শুরুর দিকে প্রভাব পড়লেও তবে এখন বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়ায় মার্কেটমূখী হয়ে পড়েছে নারী-পুরুষ ক্রেতাসাধারণ। এমনটা জানিয়েছেন বাজারের অনেক বস্ত্র বিপনীর কর্ণধাররা। ব্যবসায়ীরা আরো জানান, এখন বেচাকেনা ভাল হচ্ছে এবং গত বছরের চেয়ে এভাবে বেচাকেনা আরো ভাল হবে বলে তারা আশা করেন এবং এভাবে দামও ক্রেতাদের নাগালের মধ্যে। এদিকে ঈদগাঁও বাজারের নিউ মার্কেট, হাজি মার্কেট, বেদার মার্কেট, রহমানিয়া মার্কেট, শফি সুপার মার্কেট, মসজিদ মার্কেট, ফরাজী মার্কেট, তাজ সুপার মার্কেট, বঙ্গ মার্কেটসহ বাজারের পশ্চিম গলির কাপড়ের দোকান ঘুরে দেখা যায়, ঈদ উপলক্ষে বর্নিল সাজে সাজিয়েছে মার্কেট ও প্রতিটি বিপনিবিতাণগুলি। তাছাড়া এবারের ঈদের বাজারে ‘কিরণমালা’ নামের পোশাকের চাহিদাও চোখে পড়ার মতো। এক বিক্রেতার ভাষ্যমতে, ‘কিরণমালা পোশাকে লং ড্রেসের ওপরে থাকে কটি, নিচে ঘের, এরপর ফলস, পেছনে নকশা আর দু’পাশে দুটি ঝুমকা। এ পোশাকের দাম তুলনামূলকভাবে বেশি। দশ থেকে পঁচিশ হাজার টাকা পর্যন্ত।’ সাধারণত মেয়ে ও শিশুরা এসে কিরণমালা পোশাক চায়। গতবারের আলোচিত ‘পাখি’ পোশাকের এবারের বিক্রি কেমন জানতে চাইলে এক বিক্রেতা বলেন, পাখি পুরনো হয়ে গেছে। পাশাপাশি পোশাকের সঙ্গে ম্যাচিং করে কানের দুল, চুড়ি এবং সাজগোজের অন্যান্য অনুষঙ্গ জোগাড়ে এখন ব্যস্ত নারীরা। তবে কে কোন ড্রেস নেবে, তার সঙ্গে গয়না কী হবে, এ নিয়ে তারা ভাবনাচিন্তায় রয়েছেন। বিশেষ করে তরুণীরা নতুন কালেকশন কী এসেছে, যার জন্য এক মার্কেট থেকে অন্য মার্কেটে ছোটাছুটি করছেন। সবকিছুর খোঁজখবর নিচ্ছেন। কয়েক শিক্ষার্থী ক্রেতার মতে, ‘নিজেকে সুন্দরভাবে সাজাতে কিংবা উপস্থাপন করতে সাজসজ্জার বিষয়টি হয়ে পড়ে গুরুত্বপূর্ণ। পোশাকের রুচিশীলতা আর সৌন্দর্যে পূর্ণতা পায় সাজসজ্জায়। কসমেটিকের দোকানগুলোতেও প্রায় সারাক্ষণ তরুণীদের ভিড় ভাড়ছে। ঈদের জন্য ঝুমকা, আঙটি, শাড়ির পিন, সাইট ক্লিপ, এক্সট্রা চুল, পোশাকের সঙ্গে ম্যাচিং করে নেইলপলিশ, চুড়ি, মালা, ক্লিপ, লিপস্টিক ও কালারিং কাজলসহ বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী সামগ্রী কিনছেন তারা। পাশাপাশি বিভিন্ন ধরনের বিদেশি ব্র্যান্ডের সেন্ট, স্মার্ট মেহেদি, বডি স্প্রে, ফেস পাউডার, শ্যাম্পু, বিউটি বক্স, মেকআপ বক্স, ফেস মেকআপ, আইলাইনার, আই ব্রাউ, শ্যাম্পু, ক্রিম, লোশন, রিমোভার, নেইল কাটার, লিপস্টিক, মাশকারা, আইভ্রু, ফাউন্ডেশন, হেয়ার স্প্রেসহ আরও অনুষঙ্গ প্রসাধনী সামগ্রী। এদিকে বিক্রেতাদের মতে, এবার বর্ষা ঋতুতে ঈদ হওয়ায় সব ধরনের রঙই প্রাধান্য পেয়েছে। সবুজ, আকাশি, লাল, মেরুন, অলিভ, জামরং, অরেঞ্জ, নেভি-ব্লু অফহোয়াইট। তবে উজ্জ্বল রঙই পছন্দ করছেন ক্রেতারা। ব্যবসায়ীরা নারী ক্রেতার সুযোগে মালামাল ক্রয় করার সময় চড়াদাম নিচ্ছে বলেও অভিযোগ তুলেন একাধিক ক্রেতা। সবমিলিয়ে ঈদগাঁও বাজারের বিপনী বিতানগুলোতে ঝড় বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে হলেও চলছে অন্যরকমভাবে ঈদের বিকিকিনি।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com