বুধবার , ২২ জুলাই ২০১৫ | ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

ঈদগাঁও’র গ্রামীন যাতায়াত সড়কগুলো এখনো ক্ষত-বিক্ষত : দুর্ভোগ আর দুর্গতিতে লোকজন

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
জুলাই ২২, ২০১৫ ৬:৪৭ অপরাহ্ণ

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও :
কক্সবাজার সদর উপজেলার বৃহত্তর ঈদগাঁওয়ের ছয় ইউনিয়নের গ্রামীন সড়কগুলো এখনো ক্ষত বিক্ষত অবস্থায় থাকায় দুর্ভোগ আর দুর্গতিতে পড়েছে গ্রামাঞ্চলের অসহায় লোকজন। গেল বৃষ্টিপাত আর পাহাড়ী ঢলের পানিতে নিমজ্জিত সড়কগুলো দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না হওয়া, কার্পেটিং উঠে যাওয়ায় লঙ্কর ঝঙ্কর মার্কায় পরিণত হয়ে পড়েছে। যার কারনে বৃহত্তর ঈদগাঁও’র রোজাদার সাধারণ মানুষ ও রোগীরা পড়েছে চরম ভোগান্তিতে। ঈদগাঁও টু চৌফলদন্ডী সড়কের কার্পেটিং উঠে গিয়ে খানা খন্দকে ভরপুর সড়কটি সংস্কারের উদ্যেগ না থাকায় স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের দোষলেন সাধারণ জনগণ ও পথচারীরা। সরেজমিনে দেখা যায়, দীর্ঘ দিন সংস্কার বিহীন অবহেলিত ঈদগাঁও বংকিম বাজার নামক স্থানে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়ে বর্ষার পানি জমে থাকে। অন্য দিকে ঈদগাঁও হয়ে গোমাতলী সড়কের অবস্থা অত্যন্ত নাজুক বাশঘাটা, পাঁহাশিয়া খালী, পূর্ব পাঁহাশিয়া খালী, টেকপাড়া, পূর্ব ইছাখালী, পূর্ব গোমাতলী বাংলা বাজার সহ ঈদগাঁও মাইজ পাড়ার  সড়কটি কার্পেটিং দ্বারা সংস্কার করেছিল বহু পূর্বে। বর্ষা মৌসুমে ভারি বৃষ্টি ও লবণ বোঝায় ট্রাকের চালাচল বেশি হওয়াতে সড়কটি দিন দিন খানা খন্দকে ভরে যাছে। তার পাশাপাশি জেলা সদরের অন্যতম বাণিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজারের প্রধান ডিসি সড়কটি সংস্কার বিহীন পড়ে আছে দীর্ঘদিন ধরে। এসব সড়ক সংস্কার দেখার কেউ না থাকায় দুর্ভোগ আর দুর্গতিতে পড়েছে বৃহত্তর এলাকার সাধারণ অসহায় লোকজন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দীর্ঘকাল ধরে গুরুত্বপূর্ণ সড়ক গুলো সংস্কারের মুখ দেখেনি। সংস্কার বিহীন এ সড়ক গুলোর উন্নয়ন না হওয়ায় প্রতিদিন ঘটছে ছোট- বড় সড়ক দূর্ঘটনা। অপরদিকে লরাবাগ হয়ে মোহনভিলা নজির মাষ্টারের বাড়ি পর্যন্ত, সওদাগর পাড়া হয়ে ছাতি পাড়া, রাবারড্রাম নদী হয়ে মনজুর মৌলভীর দোকান, নাইক্যংদিয়া ওয়াপদা সড়ক হয়ে মাল মোরা পাড়া মসজিদ, চৌফলদন্ডী রাখাইন পাড়া, রোহিঙ্গা পাড়া, উত্তর পাড়া, নতুন মহাল, ইসলামাবাদ দক্ষিণ পাঁহাশিয়া খালী হয়ে বোয়াল খালী সড়ক, বাশঘাটা হয়ে হরিপুর ইউছুপের খীল , খোদাইবাড়ি ওয়াহেদর পাড়া সড়ক, ঈদগাঁও ভাদিতলা, শিয়া পাড়া, দরগাপাড়া সড়ক, ঈদগাঁও চৌফলদন্ডী সড়ক, ঈদগাঁও ঈদগড় সড়ক, মেহের ঘোনা সড়ক, কালিরছড়া হয়ে জঙ্গল মাছুয়াখালী ভুতিয়াপাড়া সড়ক, নাপিতখালী জুম নগর সড়কের করুণ অবস্থা। গর্ভবতী, বাত ব্যাথা রোগী তো দুরের কথা সাধারণ মানুষের চলাফেলা করতে দারুণ হিমশিম খেতে হয়। উলে¬খিত সড়কগুলোতে অনেক কষ্টের বিনিময়ে যানবাহন চলাচল করতে হচ্ছে বলে  জানান চালকরা। বর্ষাকালে চলাফেরা অনেকটা দায় হয়ে পড়েছে বলে জানান অনেকে। বর্ষার সময় বৃষ্টির পানির জলাবদ্ধতা আর সড়কের ভগ্নদশার জন্য কোন কাজে গমন করতে দুঃস্কর হয়ে পড়েন সাধারণ লোকজন। তবু প্রয়োজনের তাগিদে স্থানীয়রা ভোগান্তি মাথায় নিয়ে চলাফেরা করছে। এ গ্রামীণ সড়কগুলো সংস্কার কাজ না হওয়ায় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটবে বলে আশংকা প্রকাশ করেন স্থানীয় জনগণ ও চালকরা। চলতি রমজানে রোজাদার ও যানবাহন চালকরা অনেক কষ্টের বিনিময়ে চলাফেরা করতে দেখা যায়। গ্রামগঞ্জের মা-বোনদের কথা বিবেচনা করে এদিকে বৃহত্তর ঈদগাঁও’র প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে গ্রামীণ যাতায়াতের সড়ক গুলো অবিলম্বে সংস্কার করার জোর দাবী জানান সচেতন মহল।

সর্বশেষ - অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত