রবিবার , ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ | ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী-খুরুস্কুল-সড়কে যানবাহন ক্রসিংয়ের প্রশস্ত জায়গা নেই : দুর্ঘটনার আশঙ্কা

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৫ ১২:৩৩ অপরাহ্ণ

এম আবু হেনা সাগর, ঈদগাঁও :
ঈদগাঁও- চৌফলদন্ডী- খুরুষ্কুল-কক্সবাজার যাতায়াত সড়কে দুটি যানবাহন ক্রসিংয়ের প্রশস্ত জায়গা না থাকায় যে কোন মুহুর্তে দূর্ঘটনার আশঙ্কা প্রকাশ করছেন সচেতন মহলসহ যানবাহন চালকরা। এমন মন্তব্য করতে শুনা গেছে এ সড়কে চলাচলরত যানবাহন চালক ও যাত্রীদের মাঝে। মহাসড়কের পর বিকল্প সড়ক হিসাবে চৌফলদন্ডী ও কক্সবাজারের যাতায়াত সড়কটিতে অসংখ্য খানা খন্দক আর সংকীর্ণতায় জন দূর্ভোগ দিন দিন বাড়ছে। সড়কের কোথাও নেই বড় দু’টি গাড়ী ক্রসিংয়ের প্রসস্থ জায়গা। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের পরবর্তী বিকল্প হিসাবে বৃহত্তর ঈদগাঁও তথা ছয় ইউনিয়নের প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের লোকজন নানা কাজকর্মে ব্যবহার করছে চৌফলদন্ডী-কক্সবাজারের এ সড়কটি। ভয় আর নানা আতঙ্ক নিয়ে দিবারাত্রি যানবাহনের চালকরা গাড়ী চালিয়ে যাচ্ছে আতংকের মধ্যে। অদ্যবধি এ বিকল্প সড়কের সংস্কারের উদ্যোগ না নেওয়ায় একের পর এক দুর্ঘটনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। রাস্তাটি উন্নত করে সংস্কার করা হলে বিশাল এলাকার অসহায় লোকজনের কক্সবাজার আসা-যাওয়া আরো সহজতর হত বলে জানিয়েছেন একাধিক পথচারীরা। মাত্র আধা ঘন্টার পথ ঘন্টারও বেশি সময় পেরিয়ে যায়। রোগী হলে তো অবস্থা আরো বেগতিক হয়ে পড়ে।
খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায়, চৌফলদন্ডী ব্রীজের পরবর্তী সড়কটির অনেকাংশে স্থান থেকে ইট আর কংক্রিট সরে গিয়ে যাতায়াত রাস্তা ক্ষতবিক্ষত হয়ে পড়েছে। তার পাশাপাশি জোয়ার ও ঢলের পানির ধাক্কায় রাস্তা একের পর এক ভেঙ্গে গেছে। এতে করে দুর্ভোগ আর দূর্গতিতে দিনাতিপাত করছে নানা কাজকর্মের জন্য কক্সবাজার যাওয়া অসহায় লোকজন। সড়কের দু’পাশের লবণাক্ত পানি তথা চিংড়ি ঘের রয়েছে। অন্যদিকে জেলা সদরের ব্যস্ততম বাণিজ্যিক কেন্দ্র ঈদগাঁও বাজার থেকে চৌফলদন্ডী হয়ে কক্সবাজার যাতায়াত করছে নানা ছোটবড় যানবাহন। মাঝে মধ্যে মালবাহী ট্রাক ও যাতায়াত করতে দেখা যায়। এ সড়কে রাত্রি কালীন সময়ে যানবাহন চলাচল মহা কঠিন ব্যাপার হয়ে দাড়িয়েছে। যার কারন পুরো সড়কের যত্রতত্র স্থানে রয়েছে খানা খন্দক । যাতে করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে গাড়ী চালানোর সময় দুর্ঘটনায় পতিত হওয়ার আশংকা প্রকাশ করছেন চালকরা । খুরুষ্কুল টাইমবাজার, পালপাড়া, খুরুষ্কুলসহ সড়কের আওতাধীন ছোট ছোট বাজারের দোকানপাট যাতায়াতের রাস্তার উপর বসানোর ফলে যানবাহন চলাচলে দারুন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে চালকদের। সড়কে চলাচলরত কয়েক গাড়ীর চালক ও হেলাপারের মতে, অতিসত্ত্বর যদি ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী ও কক্সবাজারের যাতায়াতের বিকল্প সড়কটি সংস্কার করা হয় তাহলে বিশাল এলাকাবাসী নিশ্চিন্তে তথা আরাম-আয়েশে কক্সবাজারের নানা কাজে কর্মে আসা-যাওয়া করতে পারবে। তারা অবিলম্বে ঈদগাঁও-চৌফলদন্ডী-কক্সবাজার যাতায়াত সড়কটি সংকীর্ণতা দূর করে পর্যাপ্ত পরিমাণ সংস্কার পূর্বক দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেছেন

সর্বশেষ - অপরাধ