শুক্রবার , ১৯ নভেম্বর ২০২১ | ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

কক্সবাজারে ব্ল্যাক রাইস চাষ করে যুবকের সাফল্য 

প্রতিবেদক
সৈয়দ আলম
নভেম্বর ১৯, ২০২১ ৫:২৪ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
কক্সবাজারের ঈদগাঁও উপজেলার হাজার হাজার কৃষকের মধ্যে মাত্র একজন যুবক প্রথমবারের মতো ব্ল্যাক রাইস চাষ করে সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত করেছে। তার দেখা দেখিতে বোরো মৌসুমে সাধারণ ধান চাষের পাশাপাশি ব্ল্যাক রাইস চাষ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছে অনেকে। ব্ল্যাক রাইস ধানগাছের উচ্চতা, পাতা, শীষ, ধান ও চাল সাধারণ ধানের মতোই তবে এর সবকিছুই কালো।
কৃষি কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ইন্দোনেশিয়ায় ব্ল্যাক রাইস ধানের উৎপত্তি হলেও এক সময় চীন দেশের রাজা-বাদশাদের ভাতের জন্য গোপনে এ ধান চাষ হতো। সেই কালো জাতের ব্ল্যাক রাইস এখন ঈদগাঁওতেও চাষ হয়েছে।
কৃষকরা মাঠের সাধারণ ধান যেভাবে চাষ, পরির্চযা, সার-কীটনাশক প্রয়োগ করেন ব্ল্যাক রাইস ধানের ক্ষেত্রেও একইভাবে চাষ করছেন।
উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নের খোদাইবাড়ী গ্রামের তরুণ ব্যবসায়ী ফয়সাল কবির, ইউটিউব থেকে দেখে তার এক আত্মীয়ের মাধ্যমে ভিয়েতনাম থেকে এক কেজি ব্ল্যাক রাইসের বীজ এনে স্বাভাবিক প্রক্রিয়া বাড়ির পিছনে ১০ শতক জমিতে চাষ করেন। তিনি বলেন, জমিতে সাধারণ ধান চাষের পাশাপাশি ১০ শতক জমিতে ব্ল্যাক রাইস ধান লাগিয়েছেন। ফলন ভালো হলেও অন্য ধানের চেয়ে উৎপাদন একটু কম হবে; কিন্তু অধিক দামে মুনাফা পাব।
একই এলাকার আরও কয়েকজন স্থানীয় কৃষক ফয়সালের চাষ করা ব্ল্যাক রাইস ধানের বীজ সংগ্রহ করতে অগ্রীম বায়নাও ধরেছে। এলাকার বিভিন্ন মানুষ তার ধানের জমি দেখতে আসেন এবং অনেকেই চাষ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।
কৃষিবিদরা জানান, এ ধানের চালের ভাতে অ্যান্টি অক্সিডেন্টের পরিমাণ বেশি থাকায় ডায়াবেটিস রোগীর জন্য খুব উপকারী। মানবদেহের বিভিন্ন জটিল রোগ নিরাময়ের ক্ষেত্রেও ব্ল্যাক রাইস চালের ভাত সহায়ক ভূমিকা পালন করে।
ইসলামাবাদ ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা জিকু দাশ সুব্রত বলেন-সাধারণ ধানের চেয়ে ব্ল্যাক রাইসের দাম অধিক। এ ধানের চালের ভাত ঔষধি গুণসম্পন্ন হওয়ায় একদিকে যেমন ক্ষুধা নিবারণ করে, অন্যদিকে রোগ প্রতিরোধও করে থাকে। তিনি আরো বলেন, কক্সবাজারে সর্বপ্রথম ঈদগাঁওতে এ ধানের চাষ হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ ধানের উৎপাদন বৃদ্ধিসহ যা যা করনীয় কৃষি বিভাগ থেকে সহযোগিতা করা হবে।

সর্বশেষ - অপরাধ