1. litonsaikat@gmail.com : neelsaikat :
  2. shahjahanauh@gmail.com : কক্সবাজার আলো : কক্সবাজার আলো
  3. syedalamtek@gmail.com : syedalam :
  4. bblythe20172018@mail.ru : traceyhowes586 :

জনতার মুখোমুখি হচ্ছেন জনপ্রিয় এমপি-বদি

  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০১৫
  • ৬৯ দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার আলো :
আগে থেকেই এলাকার মানুষের সুখে-দুঃখে পাশে ছিলেন তিনি। কিন্তু দুই দুই বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর এলাকার উন্নয়নের ব্যস্ত সময় কাটছে জনপ্রিয় এমপি আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদির। এরই মধ্যে দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। মানুষের দুঃখ-দুর্দশার কথা শুনতে নিজেই ছুটে যাচ্ছেন মানুষের কাছে। এরপরও এলাকার মানুষের কথা শুনতে সবার মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন এমপি বদি। শুক্রবার সকাল ১০টায় টেকনাফ উপজেলা আওয়ামীলিগ কার্যালয়ে ‘জনতার মুখোমুখি’ হবেন তিনি। এমপি বদির উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এই অনুষ্টানে টেকনাফের সর্বস্তরের জনগণকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। সেখানে সাধারন মানুষের কথা শুনবেন এবং সরকারের বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প, অগ্রগতি নিয়ে খোলামেলা আলোচনা করবেন।
উখিয়া-টেকনাফ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব অবদুর রহমান বদি এরই মধ্যে এলাকার মানুষের মন জয় করেছেন নিজের কাজ দিয়ে। রাস্তাঘাট-মসজিদ-মন্দির-মাদ্রাসার উন্নয়নের পাশাপাশি টেকনাফের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা, ফায়ার সার্ভিস ষ্টেশন স্থাপন, কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে দৃষ্টি নন্দন ১৫টি ব্রীজ-কালভার্ট নির্মান, অধিকাংশ এলাকায় কাম সাইক্লোন শেল্টার, জেটি নির্মান ও সাবরাংয়ে ট্যুরিষ্ট জোন স্থাপনে প্রত্যক্ষভাবে সার্বিক সহযোগিতা করায় ইতিমধ্যে উখিয়া-টেকনাফসহ পুরো কক্সবাজার জেলায় নিজের সুনাম অর্জন ও দলের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলে নজির সৃষ্টি করতে চলেছেন। এ ছাড়াও জেলার আইনশৃঙ্খলা উন্নয়ন-মাদক এবং সন্ত্রাস নির্মূলে সাধ্যমতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জড়িত হলে নিজ দলের নেতা-কর্মীদেরও ছাড় দিচ্ছেন না। টেন্ডারবাজি থেকে বরাবরই নিজেকে দূরে সরিয়ে রেখেছেন। নির্বাচনের আগেও এলাকার  উন্নয়ন প্রতিশ্র“তি বাস্তবায়ন করে খেটে খাওয়া মানুষের মন কেড়ে নেন। সেই থেকে তিনি উখিয়া-টেকনাফের সব উন্নয়নে মুখ্য ভূমিকা পালন করছেন। তার মানুষের প্রতি অকৃত্রিম ভালবাসার প্রতিফলন হিসেবে দুই দুই বার বিপুল ভোটে নৌকা মার্কায় ভোট প্রদান করে এমপি নির্বাচিত করেন।
জানা যায়, প্রধানমন্ত্রীর স্নেহভাজন আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি ২০০০ সালের মাঝের দিকে আওয়ামী রাজনীতিতে নতুন মুখ হিসেবে আভির্ভূত হয়ে কক্সবাজার জেলা রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়ে বিভিন্ন সময়ে হাল ধরেন। সেই থেকে তাকে ঘিরেই চলে দলের সব কর্মকাণ্ড। গত ২ বছর আগে তার আমন্ত্রনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উখিয়া কলেজ মাঠে বিশাল জনসভা করে উখিয়া-টেকনাফের উন্নয়নে নানা প্রতিশ্র“তি দেন। সেই প্রতিশ্র“তিগুলো বাস্তবায়নে ইতিমধ্যে এমপি বদি প্রায় সফল বললেই চলে।
নির্বাচনের আগে ও পরে বিরোধী দলের আন্দোলন ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড প্রতিরোধে সক্রিয় থেকেছেন। ওই সময় সপ্তাহে তিন-চারদিন জেলায় ও এলাকায় কাটিয়েছেন এবং নেতা-কর্মীদের পাশে থেকেছেন। দ্বিতীয়বারের মত নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে তিনি জেলার উন্নয়ন ও দলকে সুসংগঠিত করতে আরও ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। সপ্তাহের দুই-তিনদিন জেলায় অবস্থান নিয়ে দুটি উপজেলার দুর্গম সীমান্ত অঞ্চলেও উন্নয়নের ছোঁয়া পৌঁছে দিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। তারুণ্যের উদ্দীপনা এখন চেহারায় স্পষ্ট থাকায় ঝড়-বৃষ্টি-কর্দমাক্ত রাস্তা উপেক্ষা করে দলকে শক্তিশালী করতে দলের প্রতিটি কর্মসূচিতে সক্রিয় অংশগ্রহণ করছেন। নিজ বাসায় দলীয় নেতা-কর্মীদের সঙ্গে সময় দেওয়ার পাশাপাশি দলের সিনিয়র নেতাদের নিয়ে নিয়মিত পার্টি কার্যালয়ে মতবিনিময় ও সব কাজে সমন্বয় করে চলার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। নির্বাচন পরবর্তীতে উখিয়া-টেকনাফকে মডেল ও সাধারণ মানুষের কর্মসংস্থান, শিক্ষা, স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে আরও ব্যাপক পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করছেন।
এছাড়া উখিয়া-টেকনাফে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিও তার বিশেষ দৃষ্টিভঙ্গি রয়েছে। এমপি হিসেবে চারটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতির দায়িত্ব নেওয়ার কথা থাকলেও একটিরও দায়িত্ব না নিয়ে সবগুলো যোগ্য ব্যক্তিদের কাছে হস্তান্তর করারও সিদ্ধান্ত রয়েছে। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্সে তিনি কাজ করে যাচ্ছেন।
আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি টেকনাফ পৌর শহরের কায়ুকখালীপাড়া এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মরহুম এজাহার মিয়া কোম্পানী। টেকনাফ শহরের প্রাণকেন্দ্র কায়ুকখালী পাড়া রোডে তার বাসা। শৈশব-কৈশোর তিনি টেকনাফেই কাটিয়েছেন। ব্যক্তিজীবনে এমপি বদি মরহুম মাতা ও পিতা এজাহার মিয়া কোম্পানীর স্মরণে গড়ে তুলেছেন এজাহার বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও মলকাবানু উচ্চ বিদ্যালয়। যার মাধ্যমে দরিদ্র ছাত্র-ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান করে আসছেন। বাবা-মায়ের নামে উখিয়া-টেকনাফে একাধিক এলাকায় স্কুল ও মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করেছেন।
এ ব্যাপারে এমপি বদির সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সাধারণ জনগণের সেবা করতে হলে জনগণের কাছে যাওয়ার পাশাপাশি পলিসি মেকিং বা নীতি-নির্ধারণীতে থাকতে হবে। এমন মনোভাব থেকেই রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ি। ভবিষ্যতে দেশের জনগণের সেবার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্র“ত বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে একযোগে কাজ করে যাব।

এই বিভাগের আরও খবর
  • © ২০১৪ - ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কক্সবাজার আলো .কম
Site Customized By NewsTech.Com