বৃহস্পতিবার , ১৩ আগস্ট ২০১৫ | ১৬ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

টেকনাফ শাহপরীরদ্বীপে এখনও ৩ গ্রামে ৪ শতাধিক পরিবার পানির নিচে

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
আগস্ট ১৩, ২০১৫ ৬:৩২ অপরাহ্ণ

টেকনাফ প্রতিনিধি :
টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপে ঘূর্ণিঝড় কোমেনের আঘাতে সাগরের প্রতিরক্ষা বেড়িবাধঁ ভেঙ্গে ৩  গ্রামের ৪ শতাধিক পরিবার এখনও পানির নিচে। কোমর বরাবর পানি থাকায় পরিবারের লোকজন বেড়ি বাধেঁ আশ্রয় নিয়ে খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। কোমেনের আঘাতে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে এমপি বদি ৫ কেজি চাল ও ৫০০ টাকা প্রদানের পর এ পর্যন্ত আর কোন সরকারী সাহায্য সহযোগীতা ক্ষতিগ্রস্ত লোকজন পায়নি । এমনকি প্রশাসনের কোন লোকজন ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন পর্যন্ত করেননি। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা শাহপরীরদ্বীপ জালিয়াপাড়া, পশ্চিমপাড়া, ক্যাম্পপাড়া, মাঝের ডেইল ও বাজার লামারপাড়া পরিদর্শন করে দেখা যায়,  প্রতিটি বাড়িতে জোয়ারের পানিতে থৈ থৈ করছে। যোগাযোগের রাস্তা ভেঙ্গে বড় বড় পুকুরে পরিনত হয়েছে। বাড়ির আসবাবপত্র যেমনি নষ্ট হয়েছে, তেমনি পানিতে সবগুলো বাড়ি হেলে পড়েছে। থাকার, খাবার, শোবার কোন স্থান নেই। সাগরের প্রতিরক্ষা বেড়িবাধঁ ভেঙ্গে যাওয়ায় জোয়ারের সময় বাড়ি ঘর গুলো পানিতে থৈ থৈ করে। ভাটার সময় বাড়ির জিনিসপত্র ভাসিয়ে নিয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন অর্ধহারে অনাহারে র্নিঘুম অবস্থায় ছোট ছোট ছেলে-মেয়ে নিয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবের জীবন যাপন করছে। এ ব্যাপারে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম জানান- ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্থ বেড়িবাধঁ গুলো পুনরায় সংস্কার করা হলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার গুলো তাদের বাড়ি ঘরে আশ্রয় নিতে পারত।

সর্বশেষ - অপরাধ

আপনার জন্য নির্বাচিত