মঙ্গলবার , ৭ জুলাই ২০১৫ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

কক্সবাজারে বন্যা কবলিত চার উপজেলায় ঈদ নেই!

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
জুলাই ৭, ২০১৫ ১০:৫২ অপরাহ্ণ

আমিনুল কবির :
কক্সবাজার জেলার চারটি উপজেলায় বন্যা কবলিত মানুষগুলো এখনো ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। বন্যা পরবর্তী প্রভাব পড়েছে ঈদবাজারে। গত সপ্তায় প্রবল বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে রামু, কক্সবাজার সদর, চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় বহু ঘর, কাচা-পাকা সড়ক বিধবস্ত হয়। ভেঙ্গে যায় বেড়ি বাঁধসহ গ্রামীণ অবকাটামো সড়ক। প্লাবিত হয় বসতঘর, ক্ষেত, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। ঢলে পানিতে ভেসে গিয়ে ও দেয়াল চাপায় নিহত হন অন্তত ২৪ জন। ওই সব এলাকায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে সরকারী ও বেসরকারী ভাবে বিভিন্ন সাহায্য সহযোগীতা দেয়া হয়। কিন্তু এসব সাহায্য প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল বলে জানান সাময়িক ক্ষতির শিকার লোকজন। সরেজমিন রামু ও কক্সবাজার সদর উপজেলার বন্যা কবলিত এলাকাগুলো পরির্দশনে দেখা গেছে, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বিশেষ করে মধ্য ও নি¤œ আয়ের মানুষগুলো এখনো ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। আগামী ১০ দিন পর মুসলমানদের বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর। কিন্তু প্রতি বছরের মতো সেই ঈদ আনন্দ আর নতুন জামা কাপড় কেনার আগ্রহ লক্ষ্য করা যায়নি। ব্যবসা বাণিজ্যেও মন্দা ভাব নেমে এসেছে। ঈদের ব্যাপক বেচা বিক্রির জন্য মালামাল মজুদ করে বেশীর ভাগ ব্যবসায়ী বেকায়দায় পড়েছে।
কক্সবাজারের রামু সদরের কয়েকটি মার্কেট ঘুরে দেখা গেছে, বেশীরভাগ ব্যবসায়ী অরস সময় কাটাচ্ছে। ক্রেতা নেই, তাই কোন নতুন জামা কাপড়,শাড়ী, জুতা সেন্ডেল সহ কোন সামগ্রীই বিক্রি হচ্ছে না। কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা জানান, পুরো উপজেলার মানুষ বন্যায় আক্রান্ত। যোগাযোগ অবস্থাও খারাপ। দূভোগে পড়ে যাওয়া অনেকে বন্যার ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে পারেনি। বন্যা পরবর্তী প্রভাব ঈদ বাজারে পড়েছে।
কক্সবাজার শহরের অভিজাত বাণিজ্যিক বিপনী বিতানগুলোর অনেক স্থানে একই অবস্থা বিরাজ করছে। ঈদের বিক্রির জন্য নিত্য নতুন ও বাহারী কাপড়ের পসরা সাজানো হলেও আশানুরূপ ভাবে বিক্রি করতে পারছে না। ব্যবসায়ীরা বলেন, গত মঙ্গলবার ১৯ রমজান অতিবাহিত হয়েছে। শহরের এমনও কোন কোন বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা এ পর্যন্ত কোন ধরনের বেচা-বিক্রি করতে পারেনি। এরপরেও তারা আশায় বুক বেধে আছে। হয়তু আগামী কয়েক দিনের মধ্যে কিছুটা বেচা-বিক্রির আশা প্রকাশ করেন তারা।

সর্বশেষ - উপজেলা

আপনার জন্য নির্বাচিত

খালেদার সঙ্গে দুই ঘণ্টা বৈঠক করলেন বার্নিকাট

দুদকে উপসহকারী পরিচালক পদে নিয়োগ পেলেন ১৪৪ জন

কক্সবাজার শহরের কচ্ছপিয়া পুকুর-খোরশেদ ভবনের সামনে হয়ে পল্লবী লেইন লকডাউন

পেকুয়ায় বন্ধ হচ্ছেনা অবৈধভাবে টমটমে চার্জ বাণিজ্য.ট্রান্সপারর্মার বিকল হয়ে বিদ্যূৎ বিচ্ছিন্ন

যার কোরআনের জ্ঞান নাই সে জাতীয় মুর্খ-আল্লামা আব্দুল বাছেত খাঁন

সহকারী শিক্ষকরা এখন ১ম শ্রেণীর কর্মকর্তা

তিন দিনের সফরে ঢাকা আসছেন কুয়েতের প্রধানমন্ত্রী

সাগরে ডুবে নিহত সিহাতের কুলখানি শুক্রবার

টেকনাফে বিএনপি নেতা মো: আব্দুল্লাহ এলএলবি’র পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ

সংস্কারের অভাবে মিঠাছড়ি-রাজারকুল সড়ক বেহাল, দুর্ভোগে ২০ গ্রামের মানুষ