রবিবার , ২৬ জুলাই ২০১৫ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

কক্সবাজার পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ডবাসি নাগরিক সুবিধা বঞ্চিত : ৫ সহস্রাধিক মানুষের দূর্ভোগ

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
জুলাই ২৬, ২০১৫ ৭:৩২ অপরাহ্ণ

এম.শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার :
কক্সবাজার পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ডবাসি হলেও প্রায় পাঁচ সহস্রাধিক অধিবাসি এখন পরবাসি হিসেবে জীবন কাটাচ্ছে। এরা দীর্ঘদিন ধরে পৌর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে প্রাপ্য নাগরিক সুবিধা হতে বঞ্চিত হয়ে আসছেন। ওই ওয়ার্ডের আর্দশ গ্রামটি দীর্ঘদিন অবহেলিত ও সড়কটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। একটু বৃষ্টি হলেই জলকাদায় সড়ক ভরে যায়। ময়লা আর্বজনা ফেলার জন্যও এখানে কোন ডাস্টবিন নেই। মশা আর বেওয়ারিশ কুকুরের উপদ্রবও কম নেই এখানে। রাস্তাঘাটের বেহাল দশার কারণ উন্নত এলাকটির যোগাযোগ ব্যবস্থা একেবারেই অনুন্নত হয়ে পড়ে রয়েছে যুগযুগ ধরে। স্থানীয় অধিবাসিরা পৌর ট্যাক্স, হোল্ডিংসহ বিভিন্ন ভাবে সরকারকে আয়করও দিয়ে আসছে। কিন্তু সে অনুপাতে কাঙ্খিত নাগরিক সুবিধা ৫ হাজার মানুষ পাচ্ছে না বলে অভিযোগ। স্থানীয় অধিবাসিরা জানান, ১২নং ওয়ার্ডের আর্দশ গ্রাম এলাকাটি সাম্প্রতিক সময়ে ভিআইপি এলাকা হিসেবে পরিচিতি লাখ করেছে। এখানে চিকিৎসক, আইনজীবি, ব্যবসায়ী, শিক্ষক, সরকারী চাকুরীজীবি, প্রবাসী সহ বিভিন্ন শ্রেণী ও পেশার প্রায় ৫ হাজারের অধিক মানুষ মানুষ বসবাস করে আসছেন। এখানে গড়ে উঠেছে স্কুল, মাদ্রাসা, মসজিদ, হাফেজখানা, দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্টান সহ বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্টান।

কলাতলি বাইপাস সড়কের থেকে সরকারী কর্মচারীদের আবাসন প্রকল্প ৫১ একরের শেষ সীমানা পর্যন্ত প্রায় ১৪০০ ফুটের দৈর্ঘ্য কাচা সড়কটি একটু বৃষ্টি হলেই পানির নিচে তলিয়ে যায়। রাস্তার দু’পাশে নেই কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থা। বিভিন্ন স্থানে খানাখন্দক ভরে গেছে। চলতি বৃষ্টির সময় জল ও কাদায় ভরে যাওয়ায় মূমুর্ষ রোগী, গর্ভবতী মহিলাদের হাসপাতালে নিয়ে যেতে মারাত্মক সমস্যা হচ্ছে কিংবা যে কোন প্রযোজনে গাড়ী যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। বৃষ্টির পানি আর কাদার কারণে মৃত দেহ দাফন করতে গোরস্থানে নিয়ে যেতেও সীমাহীন দূর্ভোগে পড়তে হয়। এছাড়া বিভিন্ন শ্রেণীর লোকজন ও স্কুল , কলেজ ও মাদ্রাসায় পড়–য়া শিশু, ছাত্রছাত্রীরা চলাচলে চরম ভাবে দূর্ভোগের শিকার হচ্ছে।

কলাতলি আর্দশ সার্বিক গ্রাম উন্নয়ন সমবায় সমিতির সভাপতি মাহামুদুল হক বাবুল, সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন লান্টু, সমাজ কমিটির সভাপতি আবদুল মোনাফ সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক মাষ্টার জসিম উদ্দিন জানান, আমরা পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ডবাসি হলেও এখানে তেমন কোন উন্নয়নমুলক কাজ হয়নি। সড়ক সংস্কারের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পৌর কর্তপক্ষের কাছে বার বার আবেদন জানিয়েও তাদের কর্ণকোহরে পৌছছে না এই আর্দশগ্রামবাসির দুঃখ দুর্দশার কাহিনী।

কক্সবাজার পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিসান উদ্দিন জিসান বলেন, শীঘ্রই আর্দশগ্রামের বিরাজিত সমস্যা নিরসনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বেওয়ারিশ কুকুর ও মশা নিধন, অবহেলিত এলাকার বিরাজিত সমস্যা আশু সমাধান কল্পে এলাকাবাসি এই আর্দশগ্রামের দিকে নজর দেয়ার জন্য স্থানীয় সরকার, পৌর কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সর্বশেষ - উপজেলা

আপনার জন্য নির্বাচিত

ঈদগাঁওতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে বিশাল সংবর্ধনা প্রদান

ইমাম মুসলিমে অভিভাবক ও হিতাকাঙ্খী সমাবেশে বক্তারা- মাদ্রাসা ও এতিমের কল্যাণে সকলের এগিয়ে আসা উচিত

কিশলয় স্কুলে রাতের অন্ধকারে পাচারকালে বই ভর্তি ট্রাক জদ্ধ!

ঈদের ছুটি শেষে অফিস-আদালত খুলছে আজ

ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে ৪ প্রতিপক্ষ, এগিয়ে ভারতীয় ঋষি

হরতাল সমর্থনে কক্সবাজার শহর জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল

দীপাবলীর আলোয় আলোকিত পর্যটন শহর

বিডিজাহান.কম সম্পাদকের বড় ভাইয়ে ইন্তেকাল

লুটপাট >> মহাসড়ক নির্মাণ ব্যয়ে শীর্ষে বাংলাদেশ

টেকনাফ উপজেলা ওলামা পরিষদের অধীনে হ্নীলা ইউনিয়ন আহবায়ক কমিটি গঠিত