মঙ্গলবার , ২১ জুলাই ২০১৫ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

নিঃস্ব হয়ে গেছে ৪শ’রও বেশি পরিবার: চলছে কান্না-আহাজারি

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
জুলাই ২১, ২০১৫ ২:৫৭ পূর্বাহ্ণ

untitled-1_89280_89280 ঢাকা : বাবা আমার মালের দরকার নাই। আমি বিধবা, আমার বাচ্চাটা বাইরে আইতে পারছে এইডাই আল্লাহর শুকরিয়া। এমন প্রতিক্রিয়াই ব্যক্ত করলেন রাজধানীর মধ্যবাড্ডায় আগুনে পুড়ে নিঃস্ব হয়ে যাওয়া ময়মনসিংহের আকলিমা।
অনিকা, আকলিমা আর ফেরদৌসীদের মতো চারশো’রও বেশি পরিবার এখন একেবারেই নিঃস্ব। ফুসকাওয়ালার আগুন কেড়ে নিয়ে গেছে তাদের সব। দুপুর সাড়ে ১২ টায়ও বসত ঘরে যেসব মালামাল সাজানো গোছানো ছিল সেসব এখন সবই আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে পড়ে আছে। আগুনে পুড়ে যাওয়া ধ্বংসস্তুপের পাশে বসে কান্না আর আহাজারি করছে তারা।

সোমবার বিকেলে এমন এক হৃদয় বিদারক দৃশ্য দেখা গেছে ঢাকা সিটি উত্তরের ২১ নং ওয়ার্ড কমিশনার ওসমান গণির মধ্যবাড্ডার বাসার সামনে। সোমবার দুপুরে আগুনে পুড়ে গেছে প্রায় পাঁচ শতাধিক ঘরের সমন্বয়ে গড়ে উঠা বিশাল আকারের বস্তিটির প্রায় পুরোটা।

চারশো’রও বেশি খেটে খাওয়া পরিবার তাদের সব হারিয়ে এখন পথে বসেছে। পরনের কাপড় ছাড়া আর কিছু তারা নিয়ে বের হতে পারেননি বলে শীর্ষ নিউজের এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন।

আগুনে কী পরিমাণ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এই প্রশ্নের সঠিক জবাব কেউ দিতে না পারলেও ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের লোকজন বললেন, আমাদের সবই শেষ হয়ে গেছে। শরীরের কাপড় ছাড়া আর কিছু নাই।

কিশোরগঞ্জের অনিকা। বেশ কিছু দিন ধরেই এখানে ভাড়া থাকেন। জিজ্ঞাসা করতেই কান্নায় ভেঙ্গে পড়লেন। বললেন, আমি এখন কী করবো? আমার সবই শেষ হয়েছে। তার অভিযোগ, ফুসকাওয়ালাই এই সর্বনাশ করেছে। তিনি বলেন, ফুসকাওয়ালা আগুন লাগাই দিয়া সে ভাগছে। তবে, ফুসকাওয়ালার নাম-ঠিকানা কেউ বলতে পারছেন না।

একই কথা বললেন ফেরদৌসী বেগম।

পুড়ে যাওয়া বস্তিটির মালিক হলেন ওসমান পরিবার। ওয়ার্ড কমিশনার ওসমান গণি, তার ভাই, সামছুল হক, মেহেদী হাসান, সিরাজুল ইসলাম ও ফজলুল হক।

কমিশনার ওসমান গণির বড় ছেলে টিটু শীর্ষ নিউজকে বলেন, এটা আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি। এখানে ছোট বড় ৭ শ’রও বেশি রুম ছিল। ভাই ভাই বোর্ডিং নামে একটি আবাসিক হোটেল ছিল। সেটাও পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।

ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানতে চাইলে তিনি কিছু বলতে পারেননি।

কমিশনারের ভাই সামছুল হকের কাছে জানতে চাইলে তিনি ক্ষয়ক্ষতির বিষয়ে কিছু বলেননি।

ফুসকাওয়ালার বিষয়ে জানতে চাইলেও তিনি তার ব্যাপারে সঠিক কোনো তথ্য দিতে পারেননি। বললেন, ফুসকাওয়ালা নতুন এসেছে। তাই তার নাম-ঠিকানা জানি না।

সর্বশেষ - উপজেলা

আপনার জন্য নির্বাচিত

ঈদগাঁও বাজার অবশেষে সিসি ক্যামেরার আওতায় আসছে

হারিয়ে যেতে বসেছে সুস্বাদু ফল ‘শরিফা’

সেপ্টেম্বরের মধ্যেই স্মার্ট কার্ড তৈরি করবে ইসি

রামুতে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদ্বোধন

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে টেকনাফ আঞ্চলিক শাখার মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

কক্সবাজার সদর উপজেলা দর্জি শ্রমিক ইউনিয়নের ইফতার মাহফিল

সোনারপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ১১ শিক্ষার্থীর বোর্ড বৃত্তি অর্জন

পেকুয়ায় জাফর হত্যার মুল হোতা গিয়াসউদ্দিন বিদেশে পালানোর অভিযোগ!

৬ আগস্ট থেকে আপিল বিভাগের চেম্বার কোর্ট চলবে

জেলার বয়োজ্যেষ্ঠ কবি ডা. কবীর আহমদের কাব্য গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান শুক্রবার