সোমবার , ২৯ জুন ২০১৫ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ
  1. অপরাধ
  2. অর্থনীতি
  3. আইন আদালত
  4. আন্তর্জাতিক
  5. আরো
  6. ইসলাম
  7. এক্সক্লুসিভ
  8. কক্সবাজার
  9. করোনাভাইরাস
  10. খেলাধুলা
  11. জাতীয়
  12. জেলা-উপজেলা
  13. পর্যটন
  14. প্রবাস
  15. বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি

পেকুয়ায় ২চেইন বেড়ীবাঁধ বিলীন, ব্যাক্তি উদ্দ্যোগে চলছে সংষ্কার কাজ

প্রতিবেদক
কক্সবাজার আলো
জুন ২৯, ২০১৫ ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ

p2015034053এস.এম.ছগির আহমদ আজগরী,পেকুয়া :
পেকুয়ায় পাহাড়ী ঢলের তীব্র ¯্রােতে দুই চেইন পাউবো’র বেড়ীবাঁধ বিলীন হয়েছে। এতে করে উপজেলার উজানটিয়া ইউনিয়নে বিচ্ছিন্ন দ্বীপ করিয়ার দিয়ার বিপুল নি¤œাঞ্চল জোয়ারের পানিতে প্লাবিত হয়েছে। গতকাল রবিবার সকালে করিয়ারদিয়ার পোঁয়ার মূখ নামক খ্যাত নাপিতা ঘোনা ও রিপোজি ঘোনা অংশে মাতামহুরীর ত্রী মোহনায় বেড়ীবাঁধ বিলীন হয়েছে। এদিকে বিলীন হওয়া অংশে সংষ্কারের জন্য স্থানীয়রা এগিয়ে এসেছেন। উজানটিয়া ইউপি’র চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম চৌধুরীর তৎপরতায় করিয়ার দিয়া এলাকার চিংড়ী প্রজেক্টের মালিকরা বেড়ীবাঁধের ভাংঙ্গন অংশ সংষ্কারের জন্য ওই দিন কাজ শুরু করেছে। স্থানীয় মৎস্য চাষী শফিউল আলম চৌং, উজানটিয়া ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি চিংড়ী প্রজেক্টের মালিক সেকাব উদ্দিন ও যুবলীগ সভাপতি সাহাব উদ্দিন ব্যাক্তিগত উদ্দ্যেগে বিলীন হওয়া  ২চেইনসহ  অধিক ঝঁকিপূর্ণ ২০চেইন করিয়ার দিয়ার পূর্বাংশের বেড়ীবাঁধ সংষ্কার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। গতকাল ২৮জুন রবিবার দুপুরে করিয়ারদিয়ায় পরিদর্শনে দেখা গেছে, কক্সবাজারের পানি উন্নয়ন বোর্ড(পাউবো)এর ৬৫/২বি পোল্ডারের বেড়ীবাঁধ মেরামতের জন্য ওই ব্যাক্তিদের অর্থ সহায়তায় প্রায় ৪শত শ্রমিক নিয়োগের মাধ্যমে মাটি কাটার কাজ চলছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে প্রতি শ্রমিককে ৪শ টাকা করে মজুরি প্রদানের মাধ্যমে সরকারী সম্পদ রক্ষায় ওই ব্যাক্তিরা এই মহৎ উদ্দ্যেগ হাতে নিয়েছে। অপর দিকে দ্রুত সময়ে বেড়ীবাঁধের বিলীন অংশ সংষ্ককার হওয়ায় বিচ্ছিন্ন দ্বীপ করিয়ারদিয়ার প্রায় ৪হাজার মানুষ চরম ক্ষয়-ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়েছে। স্থানীয়রা জানিয়েছেন পুরো ২০চেইন বেড়ীবাঁধ সংষ্কার করতে অন্তত ১০লক্ষাধিক টাকা ব্যায় হবে উদ্দ্যেক্তাদের। অপর দিকে উজানটিয়া ইউনিয়নের দক্ষিন অংশের টেক পাড়া থেকে মিয়াজী পাড়া পর্যন্ত প্রায় ২০চেইন বেড়ীবাঁধে ফাঁটল সৃষ্টি দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে ওই অংশের ১চেইন বাঁধ উজানটিয়া নদীতে ধেঁবে গেছে। চিংড়ী চাষীরা দুপুরে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ আংশিক অংশ সংষ্কার করেছে। স্থানীয় চিংড়ী চাষী আলী আকবর ব্যাক্তিগত বাঁধ রক্ষার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। জানতে চাইলে উজানটিয়া ইউপি’র চেয়ারম্যান এম. শহিদুল ইসলাম চৌং বলেন, সকালে করিয়ারদিয়ায় পানির ধাক্কায় বেড়ীবাঁধ বিলীন হয়ে যাওয়ায় জোয়ারের  পানি লোকালয়ে প্রবেশ করেছে। স্থানীয়রা দ্রুত অর্থ জোগান দিয়ে বাঁধ পানি আটকিয়েছে। কিন্তু জরুরী ভিত্তিতে বেড়ীবাঁধ সংষ্কার না হলে চলিত বর্ষায় আমার ইউনিয়নেও প্লাবিত হতে পারে।

সর্বশেষ - উপজেলা

আপনার জন্য নির্বাচিত

২০১৬ সালের ২৮ অক্টোবরের হত্যাকান্ডের খুনীদের বিচারের দাবীতে কক্সবাজার শহর জামায়াতের বিক্ষোভ মিছিল

সাংবাদিক অধ্যাপক মালিক সোবহানের মৃত্যুবার্ষিকীতে দিনব্যাপী অনুষ্ঠান

স্বাধীনতা বিরোধীদের নামে থাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন হচ্ছে, সংসদে জানালেন দীপু মনি

কক্সবাজারে ৪ লাখ ৬০ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হবে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল

এক দিনে রেকর্ড ২৩০ মৃত্যুর দিনে শনাক্তেও রেকর্ড

বের হয়ে আসছে এমপিপুত্র রুমনের রোমহর্ষক কাহিনী

ফেসবুকের বাংলাদেশ বিষয়ক কর্মকর্তা হলেন সাবহানাজ

‘অপহরণের টাকা ভাগাভাগি’ নিয়ে গোলাগুলিতে রশিদ ডাকাত নিহত

মধ্যপ্রাচ্যসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন

ঈদগাঁও’র ঘরে ঘরে নবান্ন উৎসবের প্রস্তুতি : খুশিতে উৎফুল্ল