ঢাকাশনিবার , ১৩ জুলাই ২০২৪
  1. সর্বশেষ
  2. কক্সবাজার
  3. পর্যটন

পর্যটন শিল্পে প্রাণের ছোঁয়া
হোটেলে ভাড়ার তালিকা টাঙানোর দাবি

প্রতিবেদক
ছৈয়দ আলম, কক্সবাজার আলো :
১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

Link Copied!

শীতের শেষ আমেজ আর সাপ্তাহিক ছুটির দিনে  কক্সবাজারে কয়েক লাখ পর্যটকের সমাগম হয়েছে। পর্যটকের ভিড় বাড়লে হোটেল-মোটেলে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও রেস্তোরাঁয় বেশি দামে খাবার বিক্রি শুরু হয়। কে কত বেশি টাকা হাতিয়ে নিতে পারে সেই প্রতিযোগিতায় নামেন ব্যবসায়ীরা। হোটেল ভাড়া নিয়ে কোনও তালিকা না থাকায় অনিয়মই নিয়মে পরিণত হয়েছে। এতে ঠকছেন পর্যটকরা। সাপ্তাহিক ছুটিতে ঘুরতে আসা পর্যটকরাও এমন পরিস্থিতির শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ব্যবসায়ীদের এসব আচরণে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পে বিরূপ প্রভাব পড়বে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।
এরইমধ্যে প্রতিটি হোটেলের ভাড়া (নরমাল) সর্বনিম্ন সাড়ে পাঁচ  হাজারে ঠেকেছে। কিছু ভাড়া ৯ থেকে ১২ হাজার পর্যন্ত চাওয়া হচ্ছে।
শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সরেজমিনে দেখা গেছে, হোটেল-মোটেলে নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা রাখার নিয়ম থাকলেও কোন হোটেলে তা দেখা যায়নি। কলাতলির বেশ কয়েকটি হোটেলে ঘুরে দেখা গেছে, পর্যটন শহরে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কোন রুমই খালি নেই। আর প্রায় হোটেলে প্রতিটি রুম (নরমাল) সাড়ে ৪ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ৮ হাজার টাকায় ভাড়া হয়েছে।
সমুদ্র সৈকতের লাবণী ও কলাতলি পয়েন্ট পর্যন্ত পর্যটকে ঠঁইঠম্বুর হয়েছে। কোথাও পাঁ ফেলানোর জায়গা নেই।
কক্সবাজার হোটেল-মোটেল গেস্ট হাউস মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কাশেম সিকদার জানান, বৃহস্পতিবার রাত থেকে সব হোটেলের রুম বুকিং। তাই পর্যটকরা রুম পাচ্ছে না। অতিরিক্ত ভাড়া করার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি জানান, সেটি আমার জানা নেই। তবে কিছু অসাধু ব্যবয়াসী নিচ্ছে। সমিতির অন্তর্ভুক্ত কেউ এসব কাজে জড়িত থাকলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
ঢাকার আশুলিয়া থেকে আগত পর্যটক শাহিন চৌধুরী বলেন, সকাল থেকে কক্সবাজার আসছি। কোথাও রুম নেই। হোটেলে রুম না পেয়ে সমুদ্রপাড়ের কিটকটে ৩০ টাকা করে ভাড়া নিয়ে কোনরকম বসে আছি। তবে কয়েকটা রুম পাওয়া গেলেও একেকটা রুম ৭/৮ হাজার চাই। অথচ সেই রুম স্বাভাবিক ১/২ হাজার বিক্রি করে। সিলেট থেকে আসা পর্যটক রহিম, করিম ও হান্না বলেন, পরিবার নিয়ে ঘুরতে আসছিলাম। এখানে কোথাও রুম খালি নেই। যেসব রুম খালি আছে সেগুলো কোন মানের না। রুম গুলোর অবস্থা খুবই খারাপ। তার মধ্যে ৫ হাজার টাকা চাই। কি করবো বুঝতে পারছি না। কক্সবাজারে আসলে নীতিমালা করা দরকার।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেড়াতে আসা শিক্ষার্থী মিজানুর রহমান বলেন, আমরা ঢাকা থেকে কয়েকজন বন্ধু বেড়াতে এসেছি। এখানে এসে শহরের গণপূর্ত ভবনের পাশে গড়ে ওঠা গ্রিন কক্স এবং কক্স হিলটপ হোটেলে রুম ভাড়া নিতে গেলে প্রতি রুম সাড়ে ৮ হাজার চাই।একদিনের জন্য নাকি রুম ভাড়া দেওয়া মালিক পক্ষে নিষেধ করছে। রুম গুলো দেখে মনে হলো এটি সর্বোচ্চ ১ হাজার টাকা হবে। পর্যটক বেশি আসায় হোটেল ব্যবসায়ীরা এমন আচরণ করছে। এটা কখনো কাম্য নই।
পর্যটকরা বারবার বলে আসছেন, কক্সবাজারে পর্যটনের সময় হোটেল রেস্তোরাঁয় গলাকাটা ব্যবসা করেন। প্রশাসন নামেমাত্র মাঝেমধ্যে অভিযান পরিচালনা করলেও কাজের কাজ কিছুই হয়না।
রেস্তােরাঁয় যা ইচ্ছে তাই করে যাচ্ছে। দ্বিগুন-তিনগুন দাম নিচ্ছে সবাই। খাবারের মানও ভালো নেই।
কক্সবাজারের তারকামানের হোটেল কক্স-টুডের সহকারী জেনারেল ম্যানেজার আবু তালেব বলেন, রমজানের আগ পর্যন্ত প্রায় রুম বুকিং রয়েছে। পর্যটকদের ফাইভ ষ্টার মানের সেবা দিয়ে যাচ্ছি সবসময়।
এদিকে অনেক পর্যটক রুম না পেয়ে সড়কের পাশে সময় পার করছেন।
এই বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পর্যটক সেলের ম্যাজিস্ট্রেট মাসুদ রানা বলেন, রুম ভাড়া বেশি  নেওয়ার অভিযোগটি আমরা অনুসন্ধ্যান করে ব্যবস্থা নিচ্ছি।  পর্যটক হয়রানি হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।
ট্যুরিষ্ট পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ জানান, পর্যটকদের নিরাপত্তায় রাতদিন কাজ করে যাচ্ছি। কলাতলি ও হোটেল জোনে কেউ যাতে অপকর্ম বা জীম্মি করে হয়রানী করতে না পেরে সজাগ রয়েছে পুলিশ।
হোটেল-রেস্তোরাঁয় অতিরিক্ত দাম ও নিম্মমানের খাবারের বিষয়ে তিনি বলেন, এরকম অভিযোগ পেলে সাথে সাথে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: ইয়ামিন হোসেন বলেন, পর্যটন নগরীতে কেউ হয়রানী হলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। শীতের শেষ মৌসুমে প্রচুর পর্যটক আসছে এটা বজায় থাকবে রমজান পর্যন্ত। কোন মানুষ-পর্যটক হয়রানী হলে সরাসরি ফোনে বা সরাসরি অভিযোগ দেয়ার আহবান জানান তিঁনি।

আরও পড়ুন

কক্সবাজার ঘিরে মহাপরিকল্পনা প্রণয়নে নেয়া হচ্ছে জনগণের মতামত

৩৩ দিন পর টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌ-রুটে নৌযান চলাচল 

কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পড়ে আছে ভারতের দেয়া উপহার আইসিইউ এ্যাম্বুলেন্স

রামুতে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার

কক্সবাজারের শ্রেষ্ঠ পুলিশ অফিসার টেকনাফ থানার ওসি ওসমান গনি

সেন্টমার্টিনে আসা রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলারটি মিয়ানমারে ফিরে গেছে

২ রোহিঙ্গা যুবকের দেহ তল্লাশিতে মিললো অস্ত্র গুলি

সেন্টমার্টিনে ভিড়ল মিয়ানমারের রোহিঙ্গা বোঝাই ট্রলার

কক্সবাজারে বন্য হাতির আক্রমণে মৎস্য ব্যবসায়ীর মৃত্যু 

রামুর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে   চেয়ারম্যান পদে পাঁচ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

উখিয়ায় উপনির্বাচনে ৫ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

কক্সবাজারে টানা ভারী বর্ষণে পাহাড় ধসের আশঙ্কা